রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
তীব্র গরমে অতিষ্ঠ মুরাদনগরের জনজীবন মাভাবিপ্রবিতে বেড়েছে ৩০ আসন‌ চান্দিনায় দেশ ট্রাভেলস এক্সপ্রেসের সুপারভাইজার নিহত মাদক সেবনের বকেয়া টাকার পরিশোধ হিসেবে স্ত্রীকে বন্ধক, গণধর্ষণের শিকার চান্দিনায় বাল্য বিবাহ পড়ানোর দায়ে মৌলভীকে জরিমানা করায় তুলকালাম কান্ড! শিক্ষক বাতায়নে সেরা উদ্ভাবক নির্বাচিত হলেন হোমনার নজরুল ইসলাম শিব নারায়ণ দাস আর নেই, প্রধানমন্ত্রীর শোক -শনিবার বিকেলে কুমিল্লা টাউন হল মাঠে শ্রদ্ধা জানাবে সর্বস্তরের মানুষ মুরাদনগরে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধন উদ্বোধনের দুই ঘণ্টা পরই পর্দা নামলো প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীর! চিকিৎসকের পাশাপাশি রোগীর সুরক্ষা নিশ্চিত করাও আমার দায়িত্ব : স্বাস্থ্যমন্ত্রী -কুমিল্লায় ক্যান্সার হাসপাতাল নির্মাণের দাবি জানালেন এমপি বাহার কুমিল্লা সাংস্কৃতিক জোটের নববর্ষের অনুষ্ঠান ‘বৈশাখ অবগাহন’ পরিবেশিত হবে ৪ মে নাঙ্গলকোট উপজেলায় নতুন এসিল্যান্ড দাউদকান্দিতে সরকারি ন্যায্য মূল্যের ফার্মেসি বন্ধ বাংলাদেশের চিকিৎসা সেবা বিশ্বের অনেক উন্নত দেশের তুলনায় এগিয়ে আছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী বুড়িচংয়ে এক সপ্তাহের ব্যবধানে তিন বাড়িতে ডাকাতি! সাংবাদিক রমিজ খানের দাফন সম্পন্ন -কুমিল্লা প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সংগঠনের শ্রদ্ধা মল্লিকা বিশ্বাসের কবিতা ‘দীপ্ত বৈশাখ’ মুরাদনগরের রামচন্দ্রপুর বাজারে জমে ওঠেছে বৈশাখী মাছের মেলা পহেলা বৈশাখের রাতে চান্দিনার মধ্যবাজারে অগ্নিকান্ডে ১১ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই কুমিল্লা নগরীতে বৈশাখি মাছের মেলায় ঐতিহ্যের ছোঁয়া 

আজ ২১শে ফেব্রুয়ারি, অন্যায়ের বিরুদ্ধে মাথা নত না করার দুর্দম সাহসের উৎস

প্রতিসময় ডেস্ক
  • আপডেট টাইম বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৩৬ দেখা হয়েছে

আজ ২১শে ফেব্রুয়ারি, শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।মায়ের ভাষাকে আমাদের রাষ্ট্রীয় ভাষা করার দাবিতে আন্দোলনরত বাঙালির রক্তে রাঙানোর দিন আজ।

 

একুশে ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের শাসকগোষ্ঠীর দুঃশাসন ও শোষণের শৃঙ্খল ভেঙে বাঙালি জাতিসত্তা বিনির্মাণের প্রথম সোপান। ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শৃঙ্খল থেকে মুক্ত হতে না হতেই পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী আমাদের মুখের ভাষা ‘বাংলা’ কেড়ে নিতে চায়। মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ ঘোষণা দিলেন ‘উর্দুই হবে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা।’ কিন্তু বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে ১৯৫২ সালের এদিনে ছাত্র ও যুবসমাজসহ সর্বস্তরের মানুষ সেসময়ের শাসকগোষ্ঠীর চোখ রাঙানি ও প্রশাসনের ১৪৪ ধারা উপেক্ষা করে স্বতঃস্ফূর্তভাবে রাজপথে নেমে আসে। মায়ের ভাষা প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে দুর্বার গতি পাকিস্তানি শাসকদের শঙ্কিত করে তোলায় সেদিন ছাত্র-জনতার মিছিলে পুলিশ গুলি চালালে সালাম, জব্বার, শফিক, বরকত ও রফিক শহীদ হন।

 

একুশের সেই উত্তাল সংগ্রাম জাতির মধ্যে অন্যায়ের সাথে আপোসহীন বিরুদ্ধতার যে সঞ্জীনবী শক্তি জুগিয়েছিল তা ক্রমে স্ফীত হয়ে মুক্তিযুদ্ধের গৌরবময় পথ বেয়ে স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের মধ্য দিয়ে চূড়ান্ত পরিণতি লাভ করেছিল। একুশ তাই আমাদের কাছে চির প্রেরণার প্রতীক, অন্যায়ের বিরুদ্ধে মাথা নত না করার দুর্দম সাহসের উৎস। একুশ এ জাতির শোকের দিন, একুশ আমাদের গর্বের দিন, অনুপ্রেরণা, উদ্দামের দিন।

 

রক্তের বিনিময়ে বাঙালি পেয়েছে তার মুক্তির, তার গন্তব্যের দিশা। একুশে ফেব্রুয়ারি তাই বাংলাদেশের, বাঙালির চির প্রেরণার প্রতীক।২০০০ সাল থেকে বিশ্বের ১৮৮টি দেশে একযোগে এ দিবসটি পালিত হচ্ছে। এ আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি বাঙালি জাতির জন্য এক অনন্য অর্জন।

 

Last Updated on February 21, 2024 11:32 am by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102