বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
নাঙ্গলকোট উপজেলায় নতুন এসিল্যান্ড দাউদকান্দিতে সরকারি ন্যায্য মূল্যের ফার্মেসি বন্ধ বাংলাদেশের চিকিৎসা সেবা বিশ্বের অনেক উন্নত দেশের তুলনায় এগিয়ে আছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী বুড়িচংয়ে এক সপ্তাহের ব্যবধানে তিন বাড়িতে ডাকাতি! সাংবাদিক রমিজ খানের দাফন সম্পন্ন -কুমিল্লা প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সংগঠনের শ্রদ্ধা মল্লিকা বিশ্বাসের কবিতা ‘দীপ্ত বৈশাখ’ মুরাদনগরের রামচন্দ্রপুর বাজারে জমে ওঠেছে বৈশাখী মাছের মেলা পহেলা বৈশাখের রাতে চান্দিনার মধ্যবাজারে অগ্নিকান্ডে ১১ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই কুমিল্লা নগরীতে বৈশাখি মাছের মেলায় ঐতিহ্যের ছোঁয়া  বর্ষবরণ উৎসব আমাদের জাতিসত্ত্বার বিকাশ ঘটায় : এমপি বাহার -পহেলা বৈশাখে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় উজ্জীবিত কুমিল্লার সর্বস্তরের মানুষ বিএনপির সব ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হওয়ার পর তারা এখন মনগড়া তথ্য দিয়ে নির্লজ্জ মিথ্যাচার করছে : ওবায়দুল কাদের উপজেলা নির্বাচনে নিজেদের গ্রহণযোগ্যতা পরীক্ষা করে দেখতে পারেন : কুমিল্লায় স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মুরাদনগরে ইউপি সদস্যের বাড়িতে ভাঙচুর অগ্নিসংযোগ উৎসবমুখর পরিবেশে বরুড়ার পয়ালগাছা বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের গৌরবের ৮০ বছর পূর্তি উদযাপন বিনোদনকেন্দ্রগুলোতে দর্শনার্থীদের ঢল ঈদের জামাতে ঈদগাহ ছাপিয়ে সড়কে মুসল্লিদের ঢল সাম্য-সম্প্রীতির বার্তা নিয়ে এলো খুশির ঈদ ব্রা‏হ্মনপাড়ায় মাওলানা আ. বাতেন ফাউন্ডেশনের সেলাই মেশিন ও নগদ অর্থ পেল হতদরিদ্ররা চান্দিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামীর পর চিকিৎসাধীন স্ত্রী ও ছেলের মৃত্যু ঈদের অনাবিল আনন্দে মেতে উঠতে প্রস্তুত কুমিল্লাবাসী

আহলে সুন্নাতের শীর্ষ ৫৫১ আলেমের বিবৃতি : নিকাহের বিপরীতে চুক্তিভিত্তিক যৌন সম্পর্ক স্থাপন হারাম ও ইসলামের দৃষ্টিতে শাস্তিমূলক অপরাধ

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  • আপডেট টাইম শনিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ২১৩ দেখা হয়েছে

আহলে সুন্নাত ওয়াল জমাআত বাংলাদেশ এর দপ্তর সচিব মুহাম্মদ আব্দুল হাকিম প্রেরিত এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশের শীর্ষ ৫৫১ আলেম চুক্তিভিত্তিক বিয়ের নামে অনাচার ইসলামে হারাম ও এব্যাপারে ইসলামে কঠিন শাস্তির ব্যবস্থা রয়েছে বলে বিবৃতি দিয়েছেন।

বিবৃতিতে আহলে সুন্নাতের শীর্ষ ৫৫১ আলেম  বলেছেন- ইসলামে নারীপুরুষে বন্ধনের বৈধ পন্থা হল বিয়ে। আল্লাহ বিয়েকে হালাল করেছেন বিপরীতে যিনা-ব্যভিচারসহ বিবাহ বহির্ভূত সব অবৈধ মেলামেশাকে নিষিদ্ধ করেছেন। চার মাযহাবের ইমামগণসহ সমস্ত আইম্মায়ে কিরামের ঐক্যমত হল-নিকাহের বিপরীতে চুক্তিভিত্তিক সাময়িক যৌন সম্পর্ক স্থাপন করা সম্পূর্ণ হারাম ও ইসলামের দৃষ্টিতে তা শাস্তিমূলক অপরাধ। আহলে সুন্নাতের শীর্ষ আলেমগণ বলেন- বর্তমানে ইসলাম রক্ষার  কথা বলে হেফাজতের কিছু চিহ্নিত দায়িত্বশীল নেতা হাজার বছর ধরে প্রচলিত ইসলামের মৌলিক বিধানের উপর হস্তক্ষেপ করার চেষ্টা করছে।শরয়ী শাশ্বত বিধান পাল্টে দিয়ে চুক্তিভিত্তিক সাময়িক বিয়ের প্রবর্তন করার দু:সাহস দেখাচ্ছে। যা সমাজে অবাধ অনাচার,যৌনাচার ও যুবসমাজকে বিকৃত পথে চলতে উৎসাহ দিবে। ইসলাম সম্পর্কে ভুল বার্তা পৌছাবে। অন্যদিকে ইসলামী সামাজিক রীতিনীতি ও পরিবার প্রথা ভেঙ্গে দিয়ে সামাজিক অশান্তি সৃষ্টির পথ দেখাবে।

আহলে সুন্নাতের শীর্ষ আলেমগণ বলেন- হেফাজতের তথাকথিত দায়িত্বশীল মূলত নিজের কৃত জঘন্য অপরাধ ঢাকতেই ইসলামকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। কখনো মানবিক বিয়ে, কখনো চুক্তিভিত্তিক বিয়ের কথা বলে নিজেকে রক্ষা করতে চাইলেও সবকিছু বিবেচনা ও পর্যবেক্ষণ করে শরয়ী ফয়সালা হল-  ইসলামে চুক্তি ভিত্তিক বিয়ে হারাম সুতরাং যে বা যারা এ ধরনের কর্মকান্ডে জড়িত থাকবে; প্রমাণ সাপেক্ষে তাদেরকে পাথর নিক্ষেপ করে মৃত্যুদন্ড কার্যকর করার বিষয়ে ইসলামে ফয়সালা দেয়া হয়েছে।

বিবৃতিতে আলেমগণ আরো বলেন- এভাবে ইসলামের নামে সামাজিক অনাচারে যুক্ত হওয়াসহ রাষ্ট্রীয় সম্পদ ধ্বংস করা,জানমালের ক্ষতিসাধন করাও ইসলাম সমর্থন করে না। এধরনের ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ডে জড়িত ব্যক্তি বা সংগঠনের কাছে দেশ- মিল্লাত – মাযহাব কখনো নিরাপদ নয়। ২০১০ সালে হেফাজতের জন্মের পর হতেই তারা সহিংসতা ছড়িয়ে দিচ্ছে। কখনো ইসলাম প্রচারক আল্লাহর ওলিদের মাজার খানকাহ শরীফ ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়ার হুমকি আবার কখনো দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ  সুফিবাদি জনতাকে প্রকাশ্যে হামলার হুমকি দিয়ে তারা এদেশে উগ্র জঙ্গিবাদ প্রতিষ্ঠা করতে চায়। তাদের সাথে ইসলামের মৌলিক বিশ্বাসের নূন্যতম সম্পর্কও নেই।

ইসলাম ধর্ম হেফাজতের নামে উগ্র হেফাজতিদের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখলের উচ্চ বিলাস ও ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ডে গোটা আলেম সমাজ আজ লজ্জিত হয়েছে। আহলে সুন্নাত নেতৃবৃন্দ দেশবাসীকে আলেম লেবাসধারী এ জঙ্গীগোষ্ঠির সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করার আহবান জানানোসহ দেশে প্রচলিত শিক্ষা আইন বা নীতিমালা বিরোধী কওমি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-বোর্ডগুলোর উপর পরিপূর্ণ সরকারি নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা ও হেফাজতকে উগ্র জঙ্গি সংগঠন আখ্যায়িত করে নিষিদ্ধ করারও দাবি আলেম নেতৃবৃন্দ।

আহলে সুন্নাত ওয়াল জমাআত বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান শাইখুল হাদীছ আল্লামা কাজী মুঈনুদ্দীন আশরাফী ও মহাসচিব আল্লামা সৈয়দ মছিহুদ্দৌলাহ স্বাক্ষরিত যুক্ত বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন- অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি সৈয়দ অছিয়র রহমান,শাইখুল হাদীছ আল্লামা  সোলাইমান আনসারী, অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি আব্দুল বারী জিহাদি,আল্লামা এম এ মান্নান,অধ্যক্ষ আল্লামা নুরুল আলম হেজাজী,আল্লামা মুফতি কাজী আব্দুল ওয়াজেদ,আল্লামা এম এ মতিন,অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি কাজী হারুনুর রশীদ, শাইখুল হাদীছ আল্লামা  আশরাফুজ্জমান কাদেরি,অধ্যক্ষ আল্লামা স উ ম আবদুস সামাদ,অধ্যক্ষ আল্লামা মুখতার আহমদ,শাইখুল হাদীছ ড.আফজাল হোসাইন,অধ্যক্ষ আল্লামা আব্দুল আলিম রেজভী,অধ্যক্ষ ড. মাহবুবুর রহমান,অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি আহমদ হোসাইন কাদেরী, উপাধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি আবুল কাশেম ফজলুল হক,উপাধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি ড. লিয়াকত আলী,মাও. ছাদেকুর রহমান হাশেমী, উপাধ্যক্ষ মুফতি জুলফিকার আলী চৌধুরি, অধ্যক্ষ মুফতি আবু বকর ছিদ্দিকী,অধ্যক্ষ মুফতি আব্দুল মতিন,অধ্যক্ষ মুফতি খোরশিদ আলম,অধ্যক্ষ আব্দুর রহিম কাদেরী, অধ্যক্ষ মুফতি ইসমাইল নোমানী,মুফতি গোলাম মুস্তফা, উপাধ্যক্ষ মুফতি আব্দুল আজিজ আনোয়ারী,মুফতি আলী আকবর রেজভি,অধ্যক্ষ মহিউদ্দীন হাশেমী,অধ্যক্ষ বদিউল আলম রেজভি,অধ্যক্ষ শোয়াইব রেজা,অধ্যক্ষ মুফতি খলিলুর রহমান নিজামী,অধ্যক্ষ মুহাম্মদ ইদ্রিস,অধ্যক্ষ মুশতাক আহমদ, মুফাসসির ছালেকুর রহমান কাদেরী,অধ্যক্ষ আবুল কালাম আমিরী,উপাধ্যক্ষ ড.খলিলুর রহমান,মাও. আবুল আসাদ মুহাম্মদ জুবাইর রজভি,মাও. শাহ নুর মুহাম্মদ আল কাদেরী,মুহাদ্দিস জসিম উদ্দীন আজহারি,মুফতি মুহাম্মদ উল্লাহ,অধ্যক্ষ মুফতি আব্দুল আওয়াল,মাও. আলাউদ্দিন আল কাদেরী, মুফতি গোলাম মুস্তফা মুহাম্মদ নুরুন্নবী,মুফতি হাফেজ আনিসুজ্জামান,অধ্যক্ষ জালাল উদ্দীন কাদেরি, মুফতি মাহমুদুল হাসান,অধ্যক্ষ জামেউল আখতার আশরাফী, উপাধ্যক্ষ মুফতি জসিম উদ্দীন কাদেরী,ড. মুহাম্মদ সরওয়ার উদ্দীন,অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসাইন, অধ্যাপক জালাল উদ্দীন আজহারী,ড.মুহাম্মাদ আব্দুল হালিম,ড.মুহাম্মদ নাসির উদ্দীন, ড. মুহাম্মদ সাইফুল আলম,ড. হাফিজুর রহমান,মাও. শাহজালাল আখঞ্জি,মাও. সোলাইমান খান রব্বানী,মুফতি বদিউজ্জমান হামদানী,মুহাদ্দিস মুনিরুজ্জমান কাদেরী, অধ্যক্ষ আমিনুর রহমান,অধ্যক্ষ হাফেজ আহমদ আল কাদেরী,উপাধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দীন কাদেরী,অধ্যক্ষ মুফতি আলাউদ্দিন, মুফাসসির ইউনুছ রেজভি,মুফতি আবুল হাসান মুহাম্মদ ওমাইর রজভি,মাও. সেকান্দর হোসাইন আল কাদেরী,মুফতি আহমদুল্লাহ ফোরকান খান কাদেরী,অধ্যক্ষ শাহাদাৎ হোসাইন, মুফতি ইকবাল হোসাইন কাদেরীসহ আহলে সুন্নাতের দায়িত্বশীল ও দেশের ৫৫১ জন শীর্ষ আলেম-ওলামা উক্ত বিবৃতিতে স্বাক্ষর ও সমর্থন করেন।

# দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে প্রতিসময় (protisomoy) ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।    

Last Updated on April 24, 2021 8:25 pm by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102