রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২:৩৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বিদায়-বরণ অনুষ্ঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে অনাস্থা কুবি শিক্ষক সমিতির ব্রাহ্মণপাড়া পুলিশের অভিযানে ৭৫ বস্তা ভারতীয় চিনি জব্দ, দুইজন গ্রেফতার কুমিল্লা জুড়ে কবি নজরুলের সঙ্গীত ও সাহিত্যের বর্ণিল অধ্যায় আটক ৩৯ কিশোরকে মুচলেকায় ছাড়িয়ে নিল অভিভাবকরা দেবিদ্বারে চেয়ারম্যান প্রার্থী সাহিদার প্রচারণায় সাবেক এমপি রাজী ফখরুল কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ব্যবসায়ীর মৃত্যু কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে সাংবাদিকদের সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মতবিনিময় শিক্ষার্থীর সৃজনশীল মেধা বিকাশে শিক্ষকের ভূমিকা ‘কুমিল্লা আরবান টিউশনি মিড়িয়া’ হাতিয়ে নিয়েছে কুবি শিক্ষার্থীদের অর্থ লক্ষাধিক টাকা কুমিল্লার মুরাদনগর বিএনপির প্রবীণ নেতা মতি মাষ্টারের ইন্তেকাল  কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড বিজয়নগরে যৌনকর্মী হত্যার দায়ে দুই জন গ্রেফতার কুবিতে সেইভ ইয়ুথ চ্যাপ্টারের চিত্রপ্রদর্শনী বরুড়ায় চেয়ারম্যান কামাল ভাইসচেয়ারম্যান ফরহাদ ও মিনুয়ারা নির্বাচিত কুমিল্লা আইডিয়াল কলেজে রঙিন ঘুড়ির কালচারাল ডে অনুষ্ঠিত কুমিল্লার নিউমার্কেটে তিন প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা কুমিল্লা সদর দক্ষিণে বিপুল ভোটে বাবলুর জয় মুরাদনগরে ভোটের মাঠে প্রচার প্রচারণায় ঘাম ঝরাচ্ছেন প্রার্থীরা কুমিল্লার সদর দক্ষিণে ভোটকেন্দ্রে টাকা বিতরণ : প্রার্থীর সমর্থকের তিনদিনের কারাদণ্ড

করোনাকালে বাড়িতে সন্তানের লেখাপড়ার প্রতি অভিভাবকের দায়িত্বশীল ভূমিকা

শিক্ষা-সাহিত্য ডেস্ক
  • আপডেট টাইম সোমবার, ১ মার্চ, ২০২১
  • ৪৮০ দেখা হয়েছে
করোনা মহামারী পরিস্থিতি মোকাবেলায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এখনো বন্ধ রাখা হয়েছে।করোনাকালীন এই দুঃসময়ে দৃঢ় মনোবল নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অভিভাবকের নির্দেশ অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের রুটিন মাফিক লেখাপড়া চালিয়ে যেতে হবে। এই সময়ে লেখাপড়ার চর্চা ধরে রাখতে না পারলে অপুরণীয় ক্ষতি হবে শিক্ষার্থীদের। তাই অভিভাবকদের সন্তানের লেখাপড়ার প্রতি দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে এবং তাদের পেছনে কোয়ালিটি সময় ব্যয় করতে হবে। এ বিষয়ে লিখেছেন ‘প্রতিসময়’ শিক্ষা-সাহিত্য বিভাগের নিয়মিত লেখক কুমিল্লা নগরীর নানুয়াদিঘী এলাকায় অবস্থিত নজরুল মেমোরিয়াল একাডেমীর সিনিয়র সহকারী শিক্ষক রোটারিয়ান মো. ফারুকুল ইসলাম।

বাড়িতে সন্তানের লেখাপড়ার প্রতি অভিভাবকের দায়িত্বশীল ভূমিকা

নতুন বছরের দুই মাস পার হয়ে তৃতীয় মাস শুরু হল। ভালোভাবে মনোযোগ দিয়ে রুটিন মাফিক পাঠ্যবই অধ্যয়ন করতে হবে। নতুন অধ্যায়, নতুন বিষয় নিয়মিত অধ্যয়নের মাধ্যমেই আয়ত্ব করা সম্ভব হবে। বিভিন্ন স্কুল শিক্ষার্থীদের বাড়িতে পাঠদানের বিষয়ে বিভিন্ন পদ্ধতি গ্রহণ করেছেন।  করোনাকালে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় যাতে বড় কোন সমস্যা না হয় এজন্য শিক্ষকরাও ভূমিকা রাখছেন। শিক্ষকরা অভিভাবকদের বুঝাচ্ছেন-কীভাবে বাড়িতে সন্তানের লেখাপড়ার প্রতি ভূমিকা রাখবেন।

আমরা যারা নজরুল মেমোরিয়াল একাডেমীতে শিক্ষকতা করছি, আমরা আমাদের ছাত্র/ছাত্রীদের লেখাপড়ার ধারাবাহিকতা বজায় রাখার জন্য বছরের প্রথম (জানুয়ারি মাস) থেকেই প্রত্যেক শ্রেণির জন্য বিষয়ভিত্তিক শীট তৈরি করছি। অভিভাবকগণ সপ্তাহের প্রতি রবিবারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্কুল থেকে সাপ্তাহিক পাঠদানের শীট নিয়ে সন্তানদের পাঠদান দিচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা ছাত্র/ছাত্রীদের জন্য সাপ্তাহিক পরীক্ষার ব্যবস্থা করেছি।

# সপ্তাহের প্রতি রবিবার স্কুল থেকে অভিভাবকের মাধ্যমে শিক্ষার্থীর হাতে পৌঁছানো হয় বিষয়ভিত্তিকশীট।

প্রতি সপ্তাহে আমরা একটি বিষয়ে পরীক্ষার প্রশ্ন এবং সাথে আরো দুইটি বিষয়ের শীট দিচ্ছি। ছাত্র/ছাত্রীরা অভিভাবকদের তত্ত্বাবধানে বাসায় পরীক্ষা দিচ্ছে। পরবর্তী সপ্তাহের রবিবারে অভিভাবকগণ পরীক্ষার উত্তরপত্র স্কুলে এসে জমা দিচ্ছেন এবং একই সাথে পরবর্তী সপ্তাহের জন্য পরীক্ষার প্রশ্নসহ পাঠদানের শীট নিচ্ছেন।

আবার আমাদের কাছে জমাকৃত পরীক্ষার খাতা পরীক্ষণ করে নম্বরসহ তা অভিভাবকদের কাছে পরবর্তী রবিবারে দিচ্ছি। এতে ছাত্র/ছাত্রীরা কোথাও কোনো জায়গায় উত্তর লিখতে ভুল করল কিনা এবং সেই ভুল থেকে সংশোধন করার নিয়ম জানতে পারছে। পরীক্ষা ব্যবস্থা চালু করার পর অভিভাবকগণ সন্তানদের লেখাপড়ার অগ্রগতি দেখে সন্তুষ্ট। আবার পরীক্ষার মাধ্যমে সন্তানদের ভুলভ্রান্তি সংশোধনের সুযোগ থকায় অভিভাবকগণ এসব পদ্ধতি ইতিবাচক ভাবে দেখছেন।

হাতের লেখার প্রতি গুরুত্ব: হাতের লেখা এক প্রকার আর্ট। হাতের লেখার প্রতি ধারাবাহিকভাবে যত্নশীল না হলে এটি সুন্দর থাকবে না। ছাত্র/ছাত্রীর জন্য পড়ার পাশাপাশি হাতের লেখা সুন্দরের গুরুত্ব অনেক বেশি। কেননা হাতের লেখা সুন্দর না হলে কাংখিত ফলাফল অর্জন করা যায় না।

করোনাকালের এই কঠিন সময়ে ছাত্র-ছাত্রীদের অবশ্যই তাদের বাবা-মার কথা শোনতে হবে। বাবা-মায়ের সাথে বন্ধুর মতো মনেরভাব শেয়ার করতে হবে। মনোভাব শেয়ার করলে অনেক অজানা কিছু জানা যায়। নিজের ভুলভ্রান্তি সংশোধন করা যায়।

# দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে প্রতিসময় (protisomoy) ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

Last Updated on March 1, 2021 12:32 pm by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102