বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
চেতনানাশক জুস খাইয়ে চালককে হত্যা, অটোরিকশা ছিনতাইচক্রের পাঁচ সদস্য গ্রেফতার লালমাইয়ের সুমিষ্ট পাহাড়ি কাঁঠালের সাতকাহন সাদিক মামুনের কবিতা ‘তোমাতেই খুঁজে পাই’ নগরীর নূর আইডিয়াল স্কুলের টিনের চালে নির্মাণাধীন ভবনের পিলার পড়ে ছাত্র নিহত পুকুর পাড়ে বিষের বোতল! ভেসে ওঠেছে বিভিন্ন প্রজাতের মাছ চান্দিনায় আধুনিক মাছ চাষ পদ্ধতি উন্নতিকরণ বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত কুবি শিক্ষক সমিতির ‘না’ বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বিদায়-বরণ অনুষ্ঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে অনাস্থা কুবি শিক্ষক সমিতির ব্রাহ্মণপাড়া পুলিশের অভিযানে ৭৫ বস্তা ভারতীয় চিনি জব্দ, দুইজন গ্রেফতার কুমিল্লা জুড়ে কবি নজরুলের সঙ্গীত ও সাহিত্যের বর্ণিল অধ্যায় আটক ৩৯ কিশোরকে মুচলেকায় ছাড়িয়ে নিল অভিভাবকরা দেবিদ্বারে চেয়ারম্যান প্রার্থী সাহিদার প্রচারণায় সাবেক এমপি রাজী ফখরুল কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ব্যবসায়ীর মৃত্যু কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে সাংবাদিকদের সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মতবিনিময় শিক্ষার্থীর সৃজনশীল মেধা বিকাশে শিক্ষকের ভূমিকা ‘কুমিল্লা আরবান টিউশনি মিড়িয়া’ হাতিয়ে নিয়েছে কুবি শিক্ষার্থীদের অর্থ লক্ষাধিক টাকা কুমিল্লার মুরাদনগর বিএনপির প্রবীণ নেতা মতি মাষ্টারের ইন্তেকাল  কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড বিজয়নগরে যৌনকর্মী হত্যার দায়ে দুই জন গ্রেফতার

কুমিল্লার তিতাসে চার ইউপির নেই নিজস্ব ভবন

মোহাম্মদ আলী শাহীন, স্টাফ রিপোর্টার (দাউদকান্দি) কুমিল্লা
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ৯ জুলাই, ২০২১
  • ১৫৮ দেখা হয়েছে

প্রতিষ্ঠার ১৭ বছর চলছে কুমিল্লার তিতাস উপজেলার। ২০০৪ সালে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন আলাদা করে গঠন করা হয় তিতাস উপজেলা পরিষদ। কিন্তু ৯ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চারটির নেই নিজস্ব ভবন। কখনো দোকান ঘরে, কখনো বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে বা যত্রতত্র চলছে চার ইউনিয়ন পরিষদের দাপ্তরিক কার্যক্রম।

এরমধ্যে তিতাস উপজেলার সাতানী ও কলাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের কার্যক্রম চলছে ভাড়া নেওয়া দোকানে। ভিটিকান্দি ইউনিয়নের কার্যক্রম চলছে মানিককান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শ্রেণি কক্ষে।এছাড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের জমিতে অস্থায়ী ঘর নির্মাণ করে চলছে নারান্দিয়া ইউনিয়নের কার্যক্রম।

জানা গেছে, চারটি ইউনিয়নের নিজস্ব ভবন না থাকায় যখন যিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন,তখন তিনি তাঁর সুবিধামতো জায়গায় ঘর ভাড়া নিয়ে দাপ্তরিক কাজ পরিচালনা করেন।চেয়ারম্যানরা ইউনিয়ন পরিষদের করের টাকা থেকে ভাড়া পরিশোধ করেন।

সাতানী ইউপি চেয়ারম্যান মো.সামছুল হক সরকার বলেন,ইউনিয়ন পরিষদের পুরাতন ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে প্রায় ২০ বছর আগে।তারপর থেকে বাতাকান্দি বাজারে দুই কক্ষ বিশিষ্ট একটি দোকান ভাড়া নিয়ে পরিষদের দাপ্তরিক কাজ চলছে।ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর, সাতানী ও চরকুমারিয়া গ্রামে ৫০শতক করে জমি দিয়েছে স্থানীয়রা,কিন্তু স্থান নির্ধারণ নিয়ে তিন গ্রামবাসীর মধ্যে মতবিরোধ থাকায় বর্তমানে বিষয়টি উচ্চ আদালতে বিচারাধীন আছে।

ভিটিকান্দি ইউপির কার্যক্রম চলছে মানিককান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি শ্রেণিকক্ষে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এইচ এম এখলাছ বলেন,দাসকান্দিতে ইউনিয়ন পরিষদের ভবন ছিলো।১৯৮৮ সালে গোমতী নদীর ভাঙনে ভবনটি বিলীন হয়ে যায়।তখন থেকেই আমাদের ইউনিয়ন পরিষদের ভবন নেই।যিনি যখন চেয়ারম্যান হয়,তাদের সুবিধামতো স্থানে দাপ্তরিক কাজ চালান। বর্তমান চেয়ারম্যান চান,গোমতী নদীর দক্ষিণ পাড়ে ওনার সুবিধা মতো স্থানে ভবন করতে, আর উত্তর পাড়ের কয়েক গ্রামের লোকজন চায় উত্তর পাড়ে। এমন মতবিরোধের কারণে ভবন হচ্ছে না। চেয়ারম্যান আবুল হোসেন মোল্লা বলেন,স্থান নির্ধারণ নিয়ে ইউনিয়নবাসীদের মধ্যে মতবিরোধ আছে। এ কারণে ভবন নির্মাণের জন্য প্রস্তাব পাঠানো যাচ্ছে না ।

কলাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদেরও নিজস্ব ভবন নেই,কারণ ১৯৯২ সালে বৃহত্তর ভিটিকান্দি ইউনিয়নের একাংশ নিয়ে কলাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদ গঠন করা হয়। তখন থেকেই যিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তাদের সুবিধা মতো স্থানে অফিস করেন। ইউপি চেয়ারম্যান মো.হাবিবুল্লাহ বাহার বলেন, ভবন না থাকায় কলাকান্দি বাজারে দোকান ভাড়া নিয়ে ইউনিয়নবাসীকে সেবা দিচ্ছি এবং দাপ্তরিক কার্যক্রম চালাচ্ছি।মাসে পাঁচ হাজার টাকা ভাড়া দিতে হয়।করের টাকা থেকে ভাড়া পরিশোধ করা হয়।জায়গার ব্যবস্থা না হওয়ায় ইউপির নিজস্ব ভবন নির্মাণের জন্য প্রস্তাব দিতে পারছি না।

নারান্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদের কার্যক্রম চলছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের জমিতে সেমিপাকা ঘর নির্মাণ করে।ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার জুলফিকার আলী জানান,বৃহত্তর নারান্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব ভবন ছিল জিয়ারকান্দিতে।১৯৯২সালে ভাগ হয়ে জিয়ারকান্দি নামে ইউনিয়ন পরিষদ গঠন করা হলে ভবনটি ওই পরিষদের আওতায় চলে যায়। ফলে আমাদের নারান্দিয়া ইউনিয়নে কোনো ভবন না থাকায় সেবা নিয়ে চরম ভোগান্তিতে আছেন জনসাধারণ। আগের চেয়ারম্যান আক্তারুজ্জামান উত্তর নারান্দিয়া কাচারী বাজারে তার সুবিধামতো ইউনিয়ন ভূমি অফিসে চালাতেন পরিষদের দাপ্তরিক কার্যক্রম।

নারান্দিয়ার বর্তমান চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার সালাহ উদ্দিন বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মাণের জন্য আসমানিয়া বাজারে ২৫ শতক জমি কিনেছি। জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার প্রতিবেদনসহ সব কাগজপত্র স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়া হয়েছে,ভবন নির্মাণের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন আছে।

তিতাস উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)মোছাম্মৎ রাশেদা আক্তার বলেন,আপাতত জমি অধিগ্রহণের কোনো সুযোগ নেই।কেউ যদি জমি দান করেন বা কেনা হয়, তাহলে আমরা (প্রশাসন) ইউপি ভবন নির্মাণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রস্তাব পাঠাতে পারবো। তবে সেই জমিটি হবে ইউনিয়নের মধ্যবর্তী স্থানে অথবা ইউনিয়নবাসীর সুবিধা মতো স্থানে।ইতোমধ্যে ইউপি ভবনের জন্য জমি দিতে আগ্রহীদের সঙ্গে কথা বলার জন্য ইউপি চেয়ারম্যানদের অনুরোধ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

তিতাস উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার প্রতিসময় ডটকমকে বলেন,বিষয়টি নিয়ে আমাদের এমপির সঙ্গে কথা বলেছি।তিনি আমাকে আশ্বস্থ করেছেন, ইউনিয়ন পরিষদের ভূমি জটিলতা সমস্যা সমাধান করে দ্রুত ভবন নির্মাণের ব্যাপারে গুরুত্ব দেওয়া হবে।

# দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে প্রতিসময় (protisomoy) ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।  

Last Updated on July 9, 2021 5:23 pm by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102