শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৫৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কুমিল্লায় বেগম রোকেয়া দিবস পালন ও জয়িতা সংবর্ধনা কুমিল্লা স্টেডিয়ামে আবাহনী-ফরটিজের খেলা ১ -১ গোলে ড্র গোলাপবাগ মাঠে গণসমাবেশের অনুমতি পেল বিএনপি মির্জা ফখরুল ও মির্জা আব্বাস কারাগারে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আ’লীগের সভাপতি লোটাস কামাল সাধারণ সম্পাদক মুজিবুল হক আওয়ামী লীগকে এতো সহজে ক্ষমতা থেকে সরানো যাবে না : কুমিল্লায় আ’লীগের সম্মেলনে শেখ সেলিম নাঙ্গলকোটে হাফেজদের পাগড়ী প্রদান ও কৃতি শিক্ষার্থীদের পুরষ্কার বিতরণ কুমিল্লায় খেলা হবে কোয়ার্টার ফাইনাল : ওবায়দুল কাদের কুমিল্লা মুক্ত দিবস উদযাপন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা যুবদল সভাপতি সহ দুইজন গ্রেফতার নয়াপল্টনে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে নিহত এক, আহত ২০ কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় ১৮ কেজি গাঁজাসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার  দাউদকান্দিতে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজরিত ডাকবাংলোর সংস্কার কাজের উদ্বোধন কুমিল্লার তিতাসে শয়নকক্ষে বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ কুমিল্লায় জামাত শিবিরের ২০ নেতা-কর্মী আটক বাগমারা স্কুল মাঠে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন কাল কুমিল্লার তিতাসে দুইপক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে রেলক্রসিং পারাপারের সময় ট্রেনের ধাক্কায় সিএনজি অটোরিকসার চার যাত্রী নিহত শেখ মনি’র জন্মদিনে কুমিল্লায় মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা পেল শীতবস্ত্র কিশোরগঞ্জ বুড়িচংয়ের ময়নামতিতে বাস-সিএনজি সংঘর্ষে ১ জন নিহত

কুমিল্লায় সরকারি-বেসরকারি অফিস ছাড়া সর্বত্রই মাস্ক ব্যবহারে উদাসিনতা

এম এইচ মনির,স্টাফ রিপোর্টার-কুমিল্লা
  • আপডেট টাইম সোমবার, ৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ১২৭ দেখা হয়েছে

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনা সংক্রমণের সেকেন্ড ওয়েব (দ্বিতীয় ঢেউ) শুরু হয়ে গেছে।বাংলাদেশেও করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের আভাস দেখা দিয়েছে।বিভিন্ন জেলায় সংক্রমণের হারও বাড়ছে।ভ্যাকসিনের বিকল্প ভরসা হিসেবে এখন মাস্কই বড় সুরক্ষা কবজ। অথচ সাধারণ মানুষ জীবন যাত্রা স্বাভাবিক হওয়ার পর মাস্ক পরা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ক্ষেত্রে উদাসিনতা দেখাচ্ছে।

কুমিল্লায় করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় মাস্ক ব্যবহারের উপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। কিন্তু অফিস ছাড়া কুমিল্লার আর কোথায় মাস্ক ব্যবহার নেই বললেই চলে। করোনা সচেতনতা শুধু যেন সভা-সেমিনার আর বক্তব্যে সীমাবদ্ধ। এ বিষয়ে মাঠ প্রশাসনের কঠোর মনিটরিং দাবি করেছেন সচেতন মহল।

কুমিল্লা এখনো করোনা ঝুঁকিতে রয়েছে। প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ বিষয়টি যথেষ্ট গুরুত্ব দিলেও বাড়ছে না গণসচেতনতা। গত বুধবার সকালে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলার লক্ষ্যে কুমিল্লায় জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে ওই সভায় মাস্ক ব্যবহারের উপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হয়। সভায় সিদ্ধান্ত হয়, “করোনা প্রতিরোধে প্রতিটি সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে মাস্ক না পরলে সেবা দেয়া হবে না। বাসস্ট্যান্ড এবং রেল স্টেশনে মাস্ক ব্যবহার শতভাগ নিশ্চিত করতে হবে। বিভিন্ন শপিংমল ও দোকানপাট গুলোতে মাস্ক ছাড়া ক্রয়-বিক্রয় কার্যক্রমও বন্ধ করার নির্দেশনা দেয়া হয়। এছাড়াও করোনা প্রতিরোধে সেবার বিষয়ে স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে।”

চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এ বি এম আজাদ গতকাল রবিবার কুমিল্লায় অফিশিয়াল কাজে ব্যস্ত সময় কাটান।কুমিল্লা কালেক্টরেট হেলথ কর্নার উদ্বোধন, সদর এসিল্যান্ড অফিস পরিদর্শন, আমড়াতলী ইউনিয়ন পরিষদ পরিদর্শন সহ বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে যোগদান করেন। প্রায় প্রতিটি অনুষ্ঠানে তিনি করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে মাস্ক ব্যবহারের প্রতি গুরুত্বরোপ করেন।

রবিবার সরজমিনে ঘুরে দেখা গেছে নগরীর শপিং মল, বাস টার্মিনাল কিংবা রেলস্টেশন, গণপরিবহন, কোথাও স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেই। প্রথম দিকে এসব জায়গায় যেটুকু নিয়ম পালন করা হতো, সেইটুকুও এখন উধাও। বাসস্ট্যান্ডগুলোতে কিছুদিন আগেও যাত্রী উঠানোর সময় ছিটানো হতো জীবানুনাশক। স্প্রে করা হতো পুরো গাড়ি এবং সিটে। কিন্তু এখন তাও হচ্ছে না।শপিং মলের সামনে হাত ধোয়ার বেসিন থাকলেও ব্যবহার নেই।

আবার ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে মসজিদসহ সকল ধর্মীয় উপাসনালয়ে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক প্রজ্ঞাপন জারির পরও সোমবার শহর ও শহরতলীর মসজিদগুলোতে বেশিরভাগ মুসল্লীদের মাস্ক ছাড়াই নামাজ আদায় করতে দেখা গেছে। কেউ মাস্ক পড়লেও তা থুতনিতে আটকে থাকতে দেখা গেছে।
চলমান করোনা মহামারিতে কুমিল্লাসহ সারা দেশের গণপরিবহনই এখন পুরোপুরি স্বাভাবিক। তবে বলা হয়েছে স্বাস্থ্য মেনে যাত্রী পরিবহন এবং মাস্ক ব্যবহারের কথাও। কিন্তু যাত্রীবাহী বাসসহ কুমিল্লার গণপরিবহনগুলোতে চালক, হেলপার ও যাত্রীরা মাস্ক ছাড়াই গণপরিবহনে উঠছেন। এছাড়া কমিল্লা নগরীতে সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাসহ সব ধরনের গণপরিবহনে বিন্দুমাত্র স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না যাত্রীরা। দুই জনের সিটে গাদাগাদি করে বসছেন ৩-৪ জন।

কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশনে গিয়েও দেখা যায় স্বাস্থ্যবিধি মানা এবং মাস্ক ব্যবহারে যাত্রীরা উদাসীন। সবাই ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছেন। নেই কোনও সতর্কতা। এই অবস্থা কুমিল্লার বিশেষজ্ঞরা আশংকা করছেন আগামীতে দ্বিতীয় দফা আবারও যদি করোনা আঘাত হানে তাহলে কুমিল্লাও ব্যাপক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়বে।

শাসনগাছা এশিয়া লাইন পরিহনের যাত্রী আরমান যাবেন ঢাকায়। মুখে মাস্ক নেই। তার আশপাশের সিটে বসা সব যাত্রীর একই অবস্থা। জানতে চাইলে তিনি বলেন, পকেটে মাস্ক আছে, বাসে উঠার পর খুলেছেন। ওই বাসের ৩০ জন যাত্রীর মধ্যে মাত্র ৪ জনের মুখে মাস্ক দেখা গেছে।

সন্ধ্যায় পর কুমিল্লা টাউন হল মাঠে প্রতিদিনই বেশ লোক সমাগম হচ্ছে। আড্ডা দেওয়া বিভিন্ন পেশার লোকজনের মধ্যেও কোন ধরনের করোনা সচেতনা চোখে পড়েনি। মাস্ক ব্যবহারের বিষয়ে জানতে চাইলে টাউন হল মাঠে আড্ডা দিতে আসা কলেজ ছাত্র অনিক ও সুজন জানায়, শুধু মাস্ক ব্যবহার করে করোনা থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে না। মানুষ করোনা কে ভয় পায় না তাই মাস্ক পড়ে না ।

সিনিয়র সাংবাদিক মো. লুৎফুর রহমান বলেন, আমরা আইন মেনে অভ্যস্ত নই, মানতে বাধ্য করতে হয়। এটা আমাদের স্বভাবে পরিনত হয়েছে। মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে প্রশাসনের মনিটরিং জোরদার করতে হবে।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর বলেন, যানবাহন এবং গণপরিবহনে মাস্কের ব্যবহার নিশ্চিত করতে আমাদের সব ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। সামনে করোনা প্রকোপ বাড়তে পারে সেই নির্দেশনা পেয়ে কার্যক্রমে আরও জোর দেওয়া হয়েছে।

# দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে প্রতিসময় (protisomoy) ফেসবুক পেইজে লাইক দিন।  এছাড়া protisomoy news ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন ও বেলবাটন ক্লিক করে নতুন নতুন নিউজ পেতে অ্যাকটিভ থাকুন। 

Last Updated on November 9, 2020 6:20 pm by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102