বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১২:৪২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
চেতনানাশক জুস খাইয়ে চালককে হত্যা, অটোরিকশা ছিনতাইচক্রের পাঁচ সদস্য গ্রেফতার লালমাইয়ের সুমিষ্ট পাহাড়ি কাঁঠালের সাতকাহন সাদিক মামুনের কবিতা ‘তোমাতেই খুঁজে পাই’ নগরীর নূর আইডিয়াল স্কুলের টিনের চালে নির্মাণাধীন ভবনের পিলার পড়ে ছাত্র নিহত পুকুর পাড়ে বিষের বোতল! ভেসে ওঠেছে বিভিন্ন প্রজাতের মাছ চান্দিনায় আধুনিক মাছ চাষ পদ্ধতি উন্নতিকরণ বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত কুবি শিক্ষক সমিতির ‘না’ বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বিদায়-বরণ অনুষ্ঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে অনাস্থা কুবি শিক্ষক সমিতির ব্রাহ্মণপাড়া পুলিশের অভিযানে ৭৫ বস্তা ভারতীয় চিনি জব্দ, দুইজন গ্রেফতার কুমিল্লা জুড়ে কবি নজরুলের সঙ্গীত ও সাহিত্যের বর্ণিল অধ্যায় আটক ৩৯ কিশোরকে মুচলেকায় ছাড়িয়ে নিল অভিভাবকরা দেবিদ্বারে চেয়ারম্যান প্রার্থী সাহিদার প্রচারণায় সাবেক এমপি রাজী ফখরুল কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ব্যবসায়ীর মৃত্যু কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে সাংবাদিকদের সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মতবিনিময় শিক্ষার্থীর সৃজনশীল মেধা বিকাশে শিক্ষকের ভূমিকা ‘কুমিল্লা আরবান টিউশনি মিড়িয়া’ হাতিয়ে নিয়েছে কুবি শিক্ষার্থীদের অর্থ লক্ষাধিক টাকা কুমিল্লার মুরাদনগর বিএনপির প্রবীণ নেতা মতি মাষ্টারের ইন্তেকাল  কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড বিজয়নগরে যৌনকর্মী হত্যার দায়ে দুই জন গ্রেফতার

জেলা লিগ্যাল এইডের আইনি সহায়তায় জামিনে মুক্ত হলো শারীরিক প্রতিবন্ধি মনির

সাদিক মামুন
  • আপডেট টাইম রবিবার, ১১ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪২৬ দেখা হয়েছে

কুমিল্লায় বিনামূল্যে অসচ্ছল মানুষদের আইনী সহায়তা দিয়ে  দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে আইনমন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা সরকারি আইনগত প্রদান সংস্থা ‍কুমিল্লা জেলা লিগ্যাল এইড অফিস। চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ভবনের তৃতীয় তলায় অবস্থিত জেলা লিগ্যাল এইড অফিসটিতে যোগাযোগ করে বিচারপ্রার্থী অসহায় দরিদ্র নারী-পুরুষ আইনী সহায়তা পেয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ পাচ্ছেন। অসহায় নারীরা পুনর্বাসিত হয়ে ফিরে পাচ্ছেন তাদের সুখের দাম্পত্য জীবন ও সংসার, সন্তান ফিরে পাচ্ছে  বাবা অথবা মাকে। আবার জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়েও নিষ্পত্তির মাধ্যমে উপকৃত হচ্ছেন ক্ষতিগ্রস্ত পক্ষ। অর্থাভাবে মামলা চালাতে অক্ষমরা বিনাখরচে এ সংস্থার আইনি সহায়তায় জামিনে মুক্ত হচ্ছে, কেউবা মামলা থেকে খালা পাচ্ছে। এমনিভাবে কুমিল্লা জেলায় হাজার হাজার অসহায় ও দরিদ্র মানুষকে বিনামুল্যে আইনী সহায়তা দিয়ে ভাগ্য বদলের কাজ করছেন জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার সিনিয়র সহকারি জজ ফারহানা লোকমান ও তার অফিস সহযোগিসহ প্যানেল আইনজীবীগণ।

অনলাইন নিউজপোর্টাল ‘প্রতিসময়’ প্রকাশ করছে  কুমিল্লায় সরকারি আইনগত প্রদান সংস্থা লিগ্যাল এইড অফিসের মাধ্যমে বিনাখরচে আইনী সেবা পাওয়া সুফল ভোগী মানুষের কথা। সাদিক মামুনের বিশেষ প্রতিবেদনে আজ রয়েছে অর্থাভাবে আইনজীবী নিয়োগ করতে না পেরে বিনা বিচারে ছয় মাসেরও বেশি সময় জেলহাজতে থাকা অসহায় শারীরিক প্রতিবন্ধি মনিরের জামিন প্রাপ্তিতে কুমিল্লা জেলা লিগ্যাল এইডের আইনি সহায়তার খবর…  

পরিবার নিয়ে মাথা গোঁজার ঠাঁই নেই শারীরিক প্রতিবন্ধি মনিরের। অসহায় বসতভিটেহীন মনির স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে ছোট্ট একটি ঘরে ভাড়া থাকেন। শিশুকালে টাইফয়েড জ্বর কেড়ে নেয় তার একটি পায়ের শক্তি। স্ক্রেচারে ভর করেই চলতে ফিরতে হয়। ভিক্ষাবৃত্তি পেশা বেছে নেননি। শরীরের যেটুকু সক্ষমতা রয়েছে সেটাই নিয়োজিত করলেন পরিশ্রমের দরজায়। কষ্ট হলেও জীবিকার তাগিদে বেছে নিলেন অটো রিকশা চালানোর পেশা। চলতে ফিরতে যে লোকটির শারীরিক কষ্ট পেতে হয়, সেই প্রতিবন্ধি মনিরকে চুরির মামলায় তাকে জেলে যেতে হয়েছে।

প্রতিবন্ধি মনিরের বাড়ি কুমিল্লার হোমনা উপজেলার দড়িচর গ্রামে। ২০১৯ সালের ২৯ আগষ্ট হোমনা থানায় একটি চুরির মামলা হয়।পুলিশ প্রতিবন্ধি মনিরকে মামলা হওয়ার দুইদিন পর ১ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায়। অসহায় মনিরের পক্ষে সেদিন কোন আইনজীবী ছিল না। কারণ আইনজীবী নিয়োগের অর্থ ছিল না মনিরের। আর তাই তার জামিনের আবেদন হয়নি। ফলে ওইদিন স্ক্রেচে ভর করেই প্রিজন ভ্যানে উঠে জেল হাজতে যেতে হয়।

স্বামীর অবর্তমানে দুই সন্তান নিয়ে প্রতিবন্ধি মনিরের স্ত্রী দিশেহারা হয়ে পড়েন। অভাবের সংসারে যেখানে অন্নের জোগান দিতেই হিমশিম পোহাতে হয়, সেখানে স্বামীর জামিনের খরচ কোথায় থেকে আসবে এমন দুশ্চিন্তায় দিন গড়াতে থাকে। মামলার ধার্য তারিখ পড়লেও অসহায় মনিরের পক্ষে কোন আইনজীবী দাঁড়ায় না।

এভাবে বিনা বিচারে ছয় মাস কেটে যায় অসহায় মনিরের হাজতবাস। পরে কারাগার থেকে অসহায় অভিভাবকহীন আর্থিকভাবে অসমর্থ হিসাবে কুমিল্লা জেলা লিগ্যাল এইড অফিসে আবেদন আসে। আর সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে জেলা লিগ্যাল এইড অফিস অসহায় মনিরের জন্য নিয়োগ দেয়া হয় আইনজীবী।  ধার্য তারিখে জেলা লিগ্যাল এইড অফিসের প্যানেল আইনজীবী অসহায় প্রতিবন্ধি মনিরের জামিনের জন্য আবেদন করেন।  পরবর্তীতে জামিন মঞ্জুর হয়।  ছয় মাসেরও বেশি সময় কারাভোগের পর কুমিল্লা জেলা লিগ্যাল এইডের আইনি সহায়তায় অসহায় প্রতিবন্ধি মনিরের জামিন হয়।  দীর্ঘদিন পর স্ত্রী সন্তানদের কাছে পেয়ে খুশি হয় মনির। আর কৃতজ্ঞতা জানায় জেলা লিগ্যাল এইডের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার সিনিয়র সহকারি জজ ফারহানা লোকমান বলেন-বিনা বিচারে কারাগারে আটক শারীরিক প্রতিবন্ধি মনিরের আর্থিক অসচ্ছলতার  বিষয়টি কারাগার কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আবেদনে উল্লেখের পর আমরা তার মামলা পরিচালনার জন্য আইনি সহায়তা দেই। এধরণের অসচ্ছল ভুক্তভোগীদের বিনাখরচে আইনি সেবা দিয়ে যাচ্ছে জেলা লিগ্যাল এইড অফিস। কুমিল্লা কেন্দ্রিয় কারাগারে এমন অনেক বন্দি রয়েছে যারা আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে বা তার পক্ষে মামলা পরিচালনাকারী ব্যাক্তির অভাবে বিনা বিচারে কারাগারে আটক আছেন, এধরণের বন্দিদের বিষয়ে কারাগার কর্তৃপক্ষ জেলা লিগ্যাল এই অফিসে আবেদন পাঠিয়ে থাকেন।

জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার  আরও বলেন-চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ এবং করোনা পরিস্থিতির কারণে কার্যক্রম শিথিল থাকায় জুন থেকে আগষ্ট এই ছয় মাসে আমরা কারাগার কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আসা ৩১৪টি আবেদনের প্রেক্ষিতে আইনজীবী নিয়োগ দিয়ে অসচ্ছল ৩১৪জন বন্দির পক্ষে বিনাখরচে আইনি সহায়তা দিয়ে মামলা পরিচালনা করছি।

কেবল আইনি সহায়তাই নয়, আমরা আইনি পরামর্শ দিয়ে মানুষকে তার অধিকার সর্ম্পকে সচেতন করছি। যারা আর্থিকভাবে অসচ্ছল তাদেরকে জানান দিচ্ছি অর্থ না থাকলেও নিজের অধিকার আদায়ের জন্য লিগ্যাল এইডের মাধ্যমে আইনি লড়াই চালানো যায়।

#দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে protisomoy ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে এবং ভিডিও খবর দেখতে  protisomoy news ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে অ্যাকটিভ থাকুন। 

Last Updated on October 11, 2020 4:50 am by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102