বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:২৪ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
নাঙ্গলকোট উপজেলায় নতুন এসিল্যান্ড দাউদকান্দিতে সরকারি ন্যায্য মূল্যের ফার্মেসি বন্ধ বাংলাদেশের চিকিৎসা সেবা বিশ্বের অনেক উন্নত দেশের তুলনায় এগিয়ে আছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী বুড়িচংয়ে এক সপ্তাহের ব্যবধানে তিন বাড়িতে ডাকাতি! সাংবাদিক রমিজ খানের দাফন সম্পন্ন -কুমিল্লা প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সংগঠনের শ্রদ্ধা মল্লিকা বিশ্বাসের কবিতা ‘দীপ্ত বৈশাখ’ মুরাদনগরের রামচন্দ্রপুর বাজারে জমে ওঠেছে বৈশাখী মাছের মেলা পহেলা বৈশাখের রাতে চান্দিনার মধ্যবাজারে অগ্নিকান্ডে ১১ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই কুমিল্লা নগরীতে বৈশাখি মাছের মেলায় ঐতিহ্যের ছোঁয়া  বর্ষবরণ উৎসব আমাদের জাতিসত্ত্বার বিকাশ ঘটায় : এমপি বাহার -পহেলা বৈশাখে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় উজ্জীবিত কুমিল্লার সর্বস্তরের মানুষ বিএনপির সব ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হওয়ার পর তারা এখন মনগড়া তথ্য দিয়ে নির্লজ্জ মিথ্যাচার করছে : ওবায়দুল কাদের উপজেলা নির্বাচনে নিজেদের গ্রহণযোগ্যতা পরীক্ষা করে দেখতে পারেন : কুমিল্লায় স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মুরাদনগরে ইউপি সদস্যের বাড়িতে ভাঙচুর অগ্নিসংযোগ উৎসবমুখর পরিবেশে বরুড়ার পয়ালগাছা বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের গৌরবের ৮০ বছর পূর্তি উদযাপন বিনোদনকেন্দ্রগুলোতে দর্শনার্থীদের ঢল ঈদের জামাতে ঈদগাহ ছাপিয়ে সড়কে মুসল্লিদের ঢল সাম্য-সম্প্রীতির বার্তা নিয়ে এলো খুশির ঈদ ব্রা‏হ্মনপাড়ায় মাওলানা আ. বাতেন ফাউন্ডেশনের সেলাই মেশিন ও নগদ অর্থ পেল হতদরিদ্ররা চান্দিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামীর পর চিকিৎসাধীন স্ত্রী ও ছেলের মৃত্যু ঈদের অনাবিল আনন্দে মেতে উঠতে প্রস্তুত কুমিল্লাবাসী

তাজ বিড়ি ফ্যাক্টরির কোটিপতি নুরু মাতুব্বর এখন দোকান পাহারাদার : হাসপাতালে শয্যাশায়ী পিতার পাশে নেই সন্তানরা

প্রতিসময় ডেস্ক
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৫৪ দেখা হয়েছে

 হাসপাতালের মেঝেতে চিকিৎসাধীন এক সময়ের কোটিপতি নুরু মাতুব্বর (ছবি সংগৃহিত) # 

অর্থ বিত্ত সুখ সবই ছিল ‘তাজ বিড়ি ফ্যাক্টরি’র মালিক নুরু মাতুব্বরের সংসার ঘিরে। জীবনে চরম পরিশ্রম করে তিল তিল করে সম্পদ জুড়িয়েছেন।  ছেলেকে লন্ডন পড়াশোনা করিয়েছেন।  মেয়েদেরকে বিয়ে দিয়েছেন সম্ভ্রান্ত পরিবারে। অর্থ সম্পদ সবই লিখে দিয়েছেন ছেলে মেয়েদের নামে। আজ কোটিপতি নুরুর কিছুই নেই। তার মানবেতর জীবন “বাবা কেন চাকর” সিনেমার কাহিনীকেও হার মানায়।

মাদারীপুরের ‘তাজ বিড়ি ফ্যাক্টরি’র মালিক এক সময়ের কোটিপতি ব্যবসায়ি নুরু মাতুব্বর (৬৫) এর পাশে নেই তার সন্তানরা। অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে শয্যাশায়ী একসময়কার কোটিপতি নুরু মাতুব্বরকে দেখতে তার সন্তানরাও আসছেনা। অথচ নিজের সকল সম্পত্তি ছেলে-মেয়েদের নামে লিখে দিয়ে কোটিপতি নুরু মাতুব্বর চাকরি করেন অন্যের দোকান পাহারাদারের।  অসুস্থ হয়ে অসহায়ের মতো পড়ে রয়েছেন সদর হাসপাতালে।

চিকিৎসকরা বলছেন তার উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন। কিন্তু ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাকে নিয়ে যাবে এমন কেউ নেই। চারদিন ধরে তার খোঁজখবর নিতে কেউই হাসপাতালে আসেনি।

মাদারীপুর সদর উপজেলার ঝিকরহাটি গ্রামের নুরু মাতুব্বর চরমুগুরিয়া বাজার এলাকায় তাজ বিড়ি ফ্যাক্টরির মালিক ও কোটিপতি ব্যবসায়ী ছিলেন। তার এক ছেলে, তিন মেয়ে ও স্ত্রী রয়েছে। ১৫ বছর আগে ছেলে-মেয়েদের নিজের সকল সম্পত্তি লিখে দেন।  বেশ কয়েক বছর আগে তাজ বিড়ি ফ্যাক্টরিও বন্ধ হয়ে যায়।  এরপর থেকে ছেলে মেয়েরা আর তাদের পিতার খবর রাখে না।

জীবীকার জন্য জীবনের কঠিন সময়ে এসে সেই নুরু মাতুব্বর চরমুগুরিয়া বাজার এলাকায় যেখানে তার বিড়ি ফ্যাক্টরি ছিল সেখানকার একটি দোকানে রাতে পাহাদার হিসেবে কাজ নেন।  ওই দোকানের মালিক তাকে তিন বেলা খাবার দিতেন। আবার কখনও মানুষের বাড়িতে ঘুরে দু’বেলা খাবার খেতেন। দিন চারেক আগে খুব অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করান স্থানীয় লোকজন।

হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মনিরুজ্জামান পাভেল জানালেন, নুরু মাতুব্বরকে প্রয়োজনীয় সব ধরনের চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে। কিন্তু তার উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন।  আর এজন্য দুইদিন আগে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করলেও তাকে সেখানে নিয়ে যাওয়ার কেউ নেই।

এদিকে বৃহস্পতিবার একটি অনলাইন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচারের পর নুরু মাতুব্বরের চিকিৎসার দায়িত্ব নেয় সমাজসেবা অধিদফতর। পরে মুমূর্ষু নুরু মাতুব্বরকে দেখাশোনা করার জন্য আছিয়া আক্তার নামে একজন আয়া অস্থায়ীভাবে নিয়োগ দেয়া হয়।

মাদারীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সাইফুদ্দিন গিয়াস বলেন, ‘সদর হাসপাতালে অসুস্থ অবস্থায় পড়ে থাকা বৃদ্ধের খোঁজ খবর নিতে কেউ আসে না শুনে আমি সকালে হাসাপাতালে তাকে দেখতে যাই।  তার শারীরিক অবস্থার খোঁজ খবর নিয়ে আসি।  একজন অসুস্থ পিতার ভরণপোষণ ও খোঁজখবর না নেয়ায় সন্তানদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

# দেশবিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন

Last Updated on September 4, 2020 6:28 am by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102