বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১১:১৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
চেতনানাশক জুস খাইয়ে চালককে হত্যা, অটোরিকশা ছিনতাইচক্রের পাঁচ সদস্য গ্রেফতার লালমাইয়ের সুমিষ্ট পাহাড়ি কাঁঠালের সাতকাহন সাদিক মামুনের কবিতা ‘তোমাতেই খুঁজে পাই’ নগরীর নূর আইডিয়াল স্কুলের টিনের চালে নির্মাণাধীন ভবনের পিলার পড়ে ছাত্র নিহত পুকুর পাড়ে বিষের বোতল! ভেসে ওঠেছে বিভিন্ন প্রজাতের মাছ চান্দিনায় আধুনিক মাছ চাষ পদ্ধতি উন্নতিকরণ বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত কুবি শিক্ষক সমিতির ‘না’ বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বিদায়-বরণ অনুষ্ঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে অনাস্থা কুবি শিক্ষক সমিতির ব্রাহ্মণপাড়া পুলিশের অভিযানে ৭৫ বস্তা ভারতীয় চিনি জব্দ, দুইজন গ্রেফতার কুমিল্লা জুড়ে কবি নজরুলের সঙ্গীত ও সাহিত্যের বর্ণিল অধ্যায় আটক ৩৯ কিশোরকে মুচলেকায় ছাড়িয়ে নিল অভিভাবকরা দেবিদ্বারে চেয়ারম্যান প্রার্থী সাহিদার প্রচারণায় সাবেক এমপি রাজী ফখরুল কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ব্যবসায়ীর মৃত্যু কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে সাংবাদিকদের সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মতবিনিময় শিক্ষার্থীর সৃজনশীল মেধা বিকাশে শিক্ষকের ভূমিকা ‘কুমিল্লা আরবান টিউশনি মিড়িয়া’ হাতিয়ে নিয়েছে কুবি শিক্ষার্থীদের অর্থ লক্ষাধিক টাকা কুমিল্লার মুরাদনগর বিএনপির প্রবীণ নেতা মতি মাষ্টারের ইন্তেকাল  কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড বিজয়নগরে যৌনকর্মী হত্যার দায়ে দুই জন গ্রেফতার

তারুণ্যের অনুপ্রাণন সৃজনশীল লেখক ইসমত আরা প্রিয়া

শিক্ষা-সাহিত্য ডেস্ক
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৪৬৯ দেখা হয়েছে
শিক্ষা,শিল্প,সাহিত্য মানুষকে চিন্তাশীলতার ভেতর দিয়ে নতুন চেতনার পথ দেখায়। অনলাইন নিউজপোর্টাল ‘প্রতিসময়’ এর শিক্ষা-সাহিত্য বিভাগে আপনিও যুক্ত হতে পারেন সৃজনশীল লেখা নিয়ে।সপ্তাহের শনিবার ও মঙ্গলবারের আয়োজনে আজকে শিক্ষা-সাহিত্য বিভাগে প্রকাশ করা হল দেশের সাহিত্যাঙ্গনে অল্প সময়ে তারুণ্যের মশাল জ্বালিয়ে তিনটি উপন্যাস ও একটি কবিতার বই লিখে সাড়া জাগিয়ে উদ্দীপ্ত ও রোমাঞ্চিত করে তোলা লেখক ইসমত আরা প্রিয়া ও তার নতুন উপন্যাস ‘যাবজ্জীবন’ নিয়ে কিছু কথা।   

তারুণ্যের অনুপ্রাণন সৃজনশীল লেখক ইসমত আরা প্রিয়া

তারুণ্যের একটি অংশ ফুলের সৌরভ ও কলমের শক্তির উপর নির্ভর করে ধীরে ধীরে আসছে সৃজনশীলতার কুঁড়েঘরে।যেখানে লেখালেখি করে নিজেকে তুলে ধরতে চায় সমাজ সচেতন ও তারুণ্যের অনুপ্রাণন মানুষ হিসেবে।দেশের সাহিত্যঙ্গনে তেমনি এক তারুণ্য ইসমত আরা প্রিয়া।যিনি লেখালেখিতে আত্মপ্রকাশের অল্প সময়ে আশা, উদ্দীপনার এবং সজীবতার দ্যুতি ছড়াচ্ছেন সাহিত্যাঙ্গনে।

ছোটবেলা থেকেই বই পড়ার প্রতি খুব বেশি ঝোঁক ছিল কুষ্টিয়ার মেয়ে ইসমত আরা প্রিয়ার।কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার তালবাড়িয়া ইউনিয়নের রানাখড়িয়া গ্রামের মেয়ে প্রিয়া স্কুলের প্রাইমারি গন্ডি পেরিয়ে মাধ্যমিকে পা রাখতেই লেখালেখির নেশায় মেতে উঠে। দশম শ্রেনিতে পড়া অবস্থা শুরু হয় কবিতা উপন্যাস লেখালেখি।কলেজে পা রেখে সাহিত্য চর্চায় নিজেকে আরও মনোনিবেশ করে তুলে প্রিয়া।লেখালেখির ব্যাপারে প্রথমে পরিবার থেকে সমর্থন না মিললেও পরে তার একটি লেখা একটি প্রকাশনা সংস্থার ভালো লাগায় প্রিয়া তার বাবাকে নিয়ে ঢাকায় যান। এরপর আর থেমে থাকেননি প্রিয়া।

কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ থেকে বাংলায় অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রী অর্জন করা ইসমত আরা প্রিয়ার এ পর্যন্ত তার চারটি বই প্রকাশিত হয়েছে।

বিদ্যানন্দ প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত ইসমত আরা প্রিয়ার প্রথম উপন্যাস ‘কান্নাগুলোর প্রার্থনা’ ২০১৯ সালের বইমেলা উপলক্ষে প্রকাশিত হয়।  জীবনের প্রথম উপন্যাসে প্রিয়া তার লেখায় এ উপমহাদেশের সমাজব্যাবস্থার চিরায়ত ঘটনা প্রবাহের ইঙ্গিত দিয়েছেন।আমাদের এই সমাজের নীরব কান্নাগুলো, যে কান্না কখনো কেউ দেখেনি, যে কান্নার শব্দ আমাদের সমাজের বেড়াজালে বিলীন হয়েছে- ঠিক সেই গল্পটার সরল ও সাবলীল উপস্থাপনা ছিল প্রিয়ার প্রথম উপন্যাস ‘কান্নাগুলোর প্রার্থনা’ বইটিতে।

২০২০ সালের একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হয় প্রিয়ার দ্বিতীয় উপন্যাস ‘আওয়াজ’। বইটি প্রকাশ করে বিদ্যানন্দ প্রকাশনী। এছাড়াও একটি কবিতার বই ‘নীলপদ্ম’ প্রকাশিত হয় পুস্তক প্রকাশন থেকে।

এবছর করোনা মহামারির এই কঠিন সময়ে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি প্রকাশনা সংস্থা অন্যধারা প্রকাশ করেছে প্রিয়ার চতুর্থ বই ‘যাবজ্জীবন’। তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের নিয়ে লেখা এটি সামাজিক উপন্যাস।

ইসমত আরা প্রিয়া তার ‘যাবজ্জীবন’ উপন্যাসটি নিয়ে ভূমিকায় লিখেছেন-‘এই জীবনে আমরা কেবল ততক্ষণ পর্যন্ত লড়ি, যতক্ষণ আমাদের হারানোর ভয় থাকে,বুকর ভেতর অসম্ভব কিছু চাওয়া থাকে।যেন কোন কিছুর বিনিময়ে নিজের ইচ্ছে ও স্বপ্নদের জন্য সবটুকু দিয়ে লড়ে যেতে হবে। লড়তে হবে তার জীবনের সকল চাওয়া পাওয়ার মানুষ তার জীবনের চাওয়া-পাওয়া, টিকে থাকার জন্য আসলেই অনেক কিছু করে। একের পর এক জটিল যুদ্ধ, এই যুদ্ধের শেষ নেই। জীবন মানেই শুধু বাঁচার জন্য অবিরাম লড়ে যাওয়া। অথচ একটা সময় যখন আর আমাদের হারানোর কিছু থাকে না, থাকে না অসম্ভবভাবে কোনো কিছু পাওয়ার কোনো বাসনা, তখন এই পৃথিবীতে বেঁচে থাকা নিয়ে আর কোনো ভয় থাকে না। সব চাওয়া পাওয়া হয়ে গেলে সব অজানা জানা হয়ে গেলে আমরা কেবল দি গুনি, দিন গুনি এক মৃত্যুতে বিলীন হবার। এই জীবন নামক কারাগার থেকে মুক্তির অনি:শেষ অপেক্ষায়।’

# দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে প্রতিসময় ডট কম ( protisomoy.com) এ চোখ রাখুন এবং প্রতিসময় protisomoy ফেসবুক পেইজে লাইক দিন। এছাড়াও protisomoy ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেলবাটন ক্লিক করে নতুন নতুন সংবাদ ও বিনোদন ভিডিও পেতে আমাদের সাথে থাকুন। ধন্যবাদ

Last Updated on February 23, 2021 11:06 am by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102