মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১১:০৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
চেতনানাশক জুস খাইয়ে চালককে হত্যা, অটোরিকশা ছিনতাইচক্রের পাঁচ সদস্য গ্রেফতার লালমাইয়ের সুমিষ্ট পাহাড়ি কাঁঠালের সাতকাহন সাদিক মামুনের কবিতা ‘তোমাতেই খুঁজে পাই’ নগরীর নূর আইডিয়াল স্কুলের টিনের চালে নির্মাণাধীন ভবনের পিলার পড়ে ছাত্র নিহত পুকুর পাড়ে বিষের বোতল! ভেসে ওঠেছে বিভিন্ন প্রজাতের মাছ চান্দিনায় আধুনিক মাছ চাষ পদ্ধতি উন্নতিকরণ বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত কুবি শিক্ষক সমিতির ‘না’ বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বিদায়-বরণ অনুষ্ঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে অনাস্থা কুবি শিক্ষক সমিতির ব্রাহ্মণপাড়া পুলিশের অভিযানে ৭৫ বস্তা ভারতীয় চিনি জব্দ, দুইজন গ্রেফতার কুমিল্লা জুড়ে কবি নজরুলের সঙ্গীত ও সাহিত্যের বর্ণিল অধ্যায় আটক ৩৯ কিশোরকে মুচলেকায় ছাড়িয়ে নিল অভিভাবকরা দেবিদ্বারে চেয়ারম্যান প্রার্থী সাহিদার প্রচারণায় সাবেক এমপি রাজী ফখরুল কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ব্যবসায়ীর মৃত্যু কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে সাংবাদিকদের সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মতবিনিময় শিক্ষার্থীর সৃজনশীল মেধা বিকাশে শিক্ষকের ভূমিকা ‘কুমিল্লা আরবান টিউশনি মিড়িয়া’ হাতিয়ে নিয়েছে কুবি শিক্ষার্থীদের অর্থ লক্ষাধিক টাকা কুমিল্লার মুরাদনগর বিএনপির প্রবীণ নেতা মতি মাষ্টারের ইন্তেকাল  কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড বিজয়নগরে যৌনকর্মী হত্যার দায়ে দুই জন গ্রেফতার

দায়িত্ব পালনে অপারগতা প্রকাশ কুবির সহকারী প্রক্টরের

তুষার ইমরান, কুবি প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম সোমবার, ১ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৬১ দেখা হয়েছে

এবার কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টরের পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন নৃবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক হাসেনা বেগম। ব্যক্তিগত কারণে দায়িত্ব পালনে অপারগতা প্রকাশ করে তিনি এ পদত্যাগ করেন।

 

সোমবার (১ এপ্রিল) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মো: আমিরুল হক চৌধুরী বরাবর পাঠানো হাসেনা বেগম স্বাক্ষরিত পদত্যাগপত্র জমা দেন।

 

পদত্যাগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়েই পদত্যাগ করেছি। তবে ভবিষ্যতে যদি বিশ্ববিদ্যালয়ের ও শিক্ষার্থীদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট কোনো কাজে যদি আমার প্রয়োজন হয়, আমি নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করব।

 

একেরপর এক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বিভিন্ন প্রশাসনিক পদ থেকে অব্যহতি নেওয়ার কারণ জানতে চাইলে সাবেক প্রক্টর অধ্যাপক ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন বলেন, প্রক্টরিয়াল বডি থেকে এর আগেও অনেকে পদত্যাগ করেছে। প্রক্টরের সেচ্ছাচারিতার কারণে এবং উপাচার্যের বিভিন্ন সেচ্ছাচারিতার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ে অনিয়ম সৃষ্টি করার কারণে শিক্ষকরা তাদের নৈতিক জায়গা থেকে পদত্যাগ করছেন। উনি একজন স্বৈরশাসকের মতো বিশ্ববিদ্যালয়কে পরিচালনা করছেন। এগুলো যেসব শিক্ষক মানতে পারছেন না তারাই পদত্যাগ করছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে যেসব ক্রান্তিকাল চলছে বিভিন্ন প্রশাসনিক পদ থেকে যেভাবে শিক্ষকরা পদত্যাগ করছে তাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকান্ড সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা হচ্ছে না। এই বিষয়গুলো অনুধাবন করে উনি সেচ্ছায় পদ থেকে সরে যাওয়া উচিত বলে একজন সচেতন শিক্ষক হিসেবে আমি মনে করি।

 

আরেকজন সাবেক প্রক্টর মোহাম্মদ আইনুল হক বলেন, প্রক্টরের স্বেচ্ছাচারী মনোভাব, দায়িত্বহীনতা, সমন্বয়হীনতাই সহকারী প্রক্টরদের পদত্যাগের অন্যতম কারণ৷ প্রক্টর বিশ্ববিদ্যালয়ে নিজের সুবিধার জন্য অনেক বেশি ব্যস্ত ছিলো। গত ১৯ ফেব্রুয়ারী শিক্ষকদের উপর যে হামলা হয়েছে সেখানে প্রক্টরের ইতিবাচক ভূমিকার তুলনায় নেতিবাচক ভূমিকা বেশি ছিলো। আগেও বিভিন্ন বিষয়ে তিনি বিতর্কিত ছিলেন। ছুটি না নিয়ে পিএইচডি করে সার্টিফিকেট বৈধ করেছেন। তিনি আরো বলেন প্রক্টরের এসব বিষয়ে উপাচার্য অবগত আছেন। তিনি এসবের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে পরোক্ষ বা প্রত্যাক্ষভাবে ইন্ধন দিয়ে যাচ্ছেন।

 

এদিকে গত দুইমাসে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএফএম আবদুল মঈনের বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ তুলে ১১ জন শিক্ষক বিভিন্ন প্রশাসনিক পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

Last Updated on April 1, 2024 8:25 pm by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102