রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১:০০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বিদায়-বরণ অনুষ্ঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে অনাস্থা কুবি শিক্ষক সমিতির ব্রাহ্মণপাড়া পুলিশের অভিযানে ৭৫ বস্তা ভারতীয় চিনি জব্দ, দুইজন গ্রেফতার কুমিল্লা জুড়ে কবি নজরুলের সঙ্গীত ও সাহিত্যের বর্ণিল অধ্যায় আটক ৩৯ কিশোরকে মুচলেকায় ছাড়িয়ে নিল অভিভাবকরা দেবিদ্বারে চেয়ারম্যান প্রার্থী সাহিদার প্রচারণায় সাবেক এমপি রাজী ফখরুল কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ব্যবসায়ীর মৃত্যু কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে সাংবাদিকদের সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মতবিনিময় শিক্ষার্থীর সৃজনশীল মেধা বিকাশে শিক্ষকের ভূমিকা ‘কুমিল্লা আরবান টিউশনি মিড়িয়া’ হাতিয়ে নিয়েছে কুবি শিক্ষার্থীদের অর্থ লক্ষাধিক টাকা কুমিল্লার মুরাদনগর বিএনপির প্রবীণ নেতা মতি মাষ্টারের ইন্তেকাল  কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড বিজয়নগরে যৌনকর্মী হত্যার দায়ে দুই জন গ্রেফতার কুবিতে সেইভ ইয়ুথ চ্যাপ্টারের চিত্রপ্রদর্শনী বরুড়ায় চেয়ারম্যান কামাল ভাইসচেয়ারম্যান ফরহাদ ও মিনুয়ারা নির্বাচিত কুমিল্লা আইডিয়াল কলেজে রঙিন ঘুড়ির কালচারাল ডে অনুষ্ঠিত কুমিল্লার নিউমার্কেটে তিন প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা কুমিল্লা সদর দক্ষিণে বিপুল ভোটে বাবলুর জয় মুরাদনগরে ভোটের মাঠে প্রচার প্রচারণায় ঘাম ঝরাচ্ছেন প্রার্থীরা কুমিল্লার সদর দক্ষিণে ভোটকেন্দ্রে টাকা বিতরণ : প্রার্থীর সমর্থকের তিনদিনের কারাদণ্ড

দেবরের ছুরিকাঘাতে প্রাণ গেল ভাবীর

প্রতিসময় ডেস্ক
  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০
  • ২৭৩ দেখা হয়েছে

নেশাসক্ত দেবরের ছুরিকাঘাতে প্রাণ গেল ভাবীর। মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার বামন্দী গ্রামে দেবর আকরাম হোসেন তার বড় ভাই ইমরাম হোসেনের স্ত্রী মালা খাতুন (৩২) কে ধারালো ছুরির আঘাত খুন করে।  ঘটনার পর পরই আকরাম পালিয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) বেলা ১১টায় বামন্দী গ্রামের চেরাকি পাড়ার নিজ বাড়িতে ছুরিকাঘাতের পর দুপুর দেড়টার দিকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুর রহমান বলেন, লাশ কুষ্টিয়ায় ময়নাতদন্ত হবে। হত্যাকারী আকরাম হোসেনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। মেহেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামিরুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ঘটনার পর নিহতের বাড়িতে পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন #

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আকরাম হোসেন তার ছেলেকে মারধর করছিলেন। ঠেকাতে গেলে বাবা সোলাইমান হোসেন ও মা তহুরা খাতুনকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন আকরাম। পরে তাকে নিবৃত্ত করতে এগিয়ে যান বড় ভাবি মালা খাতুন। এ সময় মালা খাতুনের তলপেটে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করেন আকরাম। মালাকে প্রথমে বামন্দীর একটি ক্লিনিকে ও পরে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

# দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে প্রতিসময় (protisomoy) ফেসবুক পেইজে লাইক দিন।  এছাড়া protisomoy news ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন ও বেলবাটন ক্লিক করে নতুন নতুন নিউজ পেতে অ্যাকটিভ থাকুন। 

Last Updated on November 5, 2020 3:32 pm by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102