রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৫২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
তীব্র গরমে অতিষ্ঠ মুরাদনগরের জনজীবন মাভাবিপ্রবিতে বেড়েছে ৩০ আসন‌ চান্দিনায় দেশ ট্রাভেলস এক্সপ্রেসের সুপারভাইজার নিহত মাদক সেবনের বকেয়া টাকার পরিশোধ হিসেবে স্ত্রীকে বন্ধক, গণধর্ষণের শিকার চান্দিনায় বাল্য বিবাহ পড়ানোর দায়ে মৌলভীকে জরিমানা করায় তুলকালাম কান্ড! শিক্ষক বাতায়নে সেরা উদ্ভাবক নির্বাচিত হলেন হোমনার নজরুল ইসলাম শিব নারায়ণ দাস আর নেই, প্রধানমন্ত্রীর শোক -শনিবার বিকেলে কুমিল্লা টাউন হল মাঠে শ্রদ্ধা জানাবে সর্বস্তরের মানুষ মুরাদনগরে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধন উদ্বোধনের দুই ঘণ্টা পরই পর্দা নামলো প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীর! চিকিৎসকের পাশাপাশি রোগীর সুরক্ষা নিশ্চিত করাও আমার দায়িত্ব : স্বাস্থ্যমন্ত্রী -কুমিল্লায় ক্যান্সার হাসপাতাল নির্মাণের দাবি জানালেন এমপি বাহার কুমিল্লা সাংস্কৃতিক জোটের নববর্ষের অনুষ্ঠান ‘বৈশাখ অবগাহন’ পরিবেশিত হবে ৪ মে নাঙ্গলকোট উপজেলায় নতুন এসিল্যান্ড দাউদকান্দিতে সরকারি ন্যায্য মূল্যের ফার্মেসি বন্ধ বাংলাদেশের চিকিৎসা সেবা বিশ্বের অনেক উন্নত দেশের তুলনায় এগিয়ে আছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী বুড়িচংয়ে এক সপ্তাহের ব্যবধানে তিন বাড়িতে ডাকাতি! সাংবাদিক রমিজ খানের দাফন সম্পন্ন -কুমিল্লা প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সংগঠনের শ্রদ্ধা মল্লিকা বিশ্বাসের কবিতা ‘দীপ্ত বৈশাখ’ মুরাদনগরের রামচন্দ্রপুর বাজারে জমে ওঠেছে বৈশাখী মাছের মেলা পহেলা বৈশাখের রাতে চান্দিনার মধ্যবাজারে অগ্নিকান্ডে ১১ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই কুমিল্লা নগরীতে বৈশাখি মাছের মেলায় ঐতিহ্যের ছোঁয়া 

দেলোয়ার ও জিলানী হত্যা মামলার আসামী কাউন্সিলর সাত্তার গ্রেফতার

প্রতিসময় রিপোর্ট
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২৩১ দেখা হয়েছে

কুমিল্লা দক্ষিন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন হত্যাকান্ডের মুল পরিকল্পনাকারী ও জিল্লুর রহমান চৌধুরী জিলানী হত্যা মামলার ২ নং আসামী কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ২৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুস ছাত্তার গ্রেফতার হয়েছেন।মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) বিকালে ঢাকা শাহাবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কুমিল্লার একটি টিম।

দেলোয়ার হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও পিবিআই কুমিল্লার পরিদর্শক মতিউর রহমান গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পিবিআই সূত্রে জানা যায়, জিল্লুর রহমান চৌধুরী ওরফে জিলানী হত্যাকান্ডের পর দায়ের করা মামলার আসামি কাউন্সিলর আবদুস সাত্তার দীর্ঘদিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে পলাতক ছিলেন। একেক সময় তিনি একেক স্থানে অবস্থান করেন। পিবিআই কুমিল্লার পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান জানান, কয়েক দিন ধরে তিনি ঢাকার শাহবাগ থানা এলাকায় অবস্থান করছেন গোপন সূত্রে খবর পেয়ে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় বিকালে তাকে গ্রেফতার করার পর রাতে কুমিল্লায় নিয়ে আসা হয়। কাউন্সিলর আবদুস সাত্তার এ মামলার ২নং আসামি। হত্যাকান্ডের বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে বুধবার (২৭ জানুয়ারি) আদালতে প্রেরণ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১১ নভেম্বর সকালে জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার পুরাতন চৌয়ারা বাজারে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা জিল্লুর রহমান জিলানীকে কুপিয়ে হত্যা করে। ঘটনার দিন গভীর রাতে সদর দক্ষিণ মডেল থানায় মামলাটি দায়ের করেন নিহতের ছোট ভাই মোঃ ইমরান হোসাইন চৌধুরী। সিটি করপোরেশনের ২৭ নং কাউন্সিলর আবুল হাসান, ২৬ নং কাউন্সিলর আবদুস সাত্তার এবং সাবেক কাউন্সিলর খলিলুর রহমান মজুমদার ওরফে খলিলসহ ২৪ জনকে এজাহার নামীয় এবং অজ্ঞাতনামা আরও ১০/১৫ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। এর আগে ঘটনার দিন পুলিশ আব্দুল কাদের নামে এজাহারনামীয় এক আসামি এবং মামলাটি পিবিআইতে আসার পর নুরুল ইসলাম নামের একজনকে গ্রেফতার করে। এরই মধ্যে এ মামলায় এজাহার নামীয় ১৫ জন উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তাহের জন্য অন্তবর্তীকালীন জামিন লাভ করেছেন। গত ৩০ নভেম্বর থেকে মামলাটি তদন্ত করছে পিবিআই।

এছাড়া কুমিল্লা নগরীর শামবক্সি (ভল্লবপুর) এলাকায় ২০১৮ সালের ২৬ নভেম্বর রাতে একদল সন্ত্রাসী মোটর সাইকেলে করে এসে দেলোয়ারকে ঘেরাও করে হামলা চালায় এবং মাথায় গুলি করে তাকে হত্যা করে। ঘটনার পরদিন নিহতের ভাই শাহাদাত হোসেন নয়ন বাদী হয়ে সদর দক্ষিণ মডেল থানায় মামলা করেন। মামলায় ওই গ্রামের রেজাউল করিম ও কাউছারসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করা হয়। মামলাটি বর্তমানে তদন্ত করছে পিবিআই। নিহত দেলোয়ার হোসেন রাজনীতির পাশাপাশি হাউজিং এস্টেট স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক ও কেটিসিসিএ লি, এর পরিচালক ছিলেন।

চাঞ্চল্যকর দেলোয়ার খুনের মামলাটি থানা পুলিশের পর এখন তদন্ত করছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কুমিল্লা। পিবিআই এর দাবি, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জের ধরেই দেলোয়ার কে হত্যা করা হয় আর দেলোয়ার হোসেন হত্যাকান্ডের মূল পরিকল্পনাকারী ছিল স্থানীয় ২৭ ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবদুছ সাত্তার। কাউন্সিলর কার্যলয়ে হত্যাকান্ডের পরিকল্পনা করা হয়। কিলিং মিশনে অংশ নেয়া এক আসামী আনোয়ার হোসেন হত্যাকান্ডের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দি থেকে এসব তথ্য বেরিয়ে আসে। দেলোয়ারের ঘাতক এজহার নামীয় প্রধান আসামী রেজাউলের সহযোগী আনোয়ার হোসেনকে গত বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার করা হয়। পরদিন-ই সে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। এতে খুনের মুল পরিকল্পনাকারী কাউন্সিলর সাত্তার ও কিলিং মিশনে অংশ নেওয়া আসামীদের নাম উঠে আসে।

নিহত দেলোয়ারের বড় ভাই ও মামলার বাদী শাহাদাত হোসেন নয়ন বলেন, ‘দেলোয়ার হত্যাকান্ডের মূল পরিকল্পনাকারী কাউন্সিলর আবদুস সাত্তার এক আসামীর আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে তা স্পষ্ট হয়ে গেছে। পিবিআই প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি দেরীতে হলেও মুল পরিকল্পনাকারী ধরেছেন। তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।’

# দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে প্রতিসময় ডট কম ( protisomoy.com) এ চোখ রাখুন এবং প্রতিসময় protisomoy ফেসবুক পেইজে লাইক দিন। এছাড়াও protisomoy ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেলবাটন ক্লিক করে নতুন নতুন সংবাদ ও বিনোদন ভিডিও পেতে আমাদের সাথে থাকুন। ধন্যবাদ

Last Updated on January 26, 2021 9:39 pm by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102