মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৪৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
সদরের আমতলীতে র‌্যাবের অভিযানে  দুই মাদককারবারী আটক ৯৩ বছর বয়সে বিয়ে করলেন কুমিল্লার সর্বজন শ্রদ্ধেয় আইনজীবী মো. ইসমাইল কুমিল্লা জেলাজুড়ে করোনার উর্ধ্বগতি *বড় বিপদের আশঙ্কা দেখছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর* নতুন বছরে দৃঢ় মনোবল নিয়ে মনোযোগী হয়ে উঠুক কোমলমতি শিক্ষার্থীরা  শপথ নিলেন দাউদকান্দির ১২ ইউনিয়ন পরিষদের নবনির্বাচিত মেম্বার লকডাউনের কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি, পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে পরিস্থিতি কুমিল্লার লাকসামে প্রবাসীর স্ত্রীর আত্মহত্যা : চিরকুটে স্বামীকে দায়ী শপথ নেওয়ার পর মেঘনার ইউপি চেয়ারম্যান জাকির কারাগারে দাউদকান্দিতে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পরিদর্শনে বিভাগীয় কমিশনার সমৃদ্ধ দেশ গড়তে প্রয়োজন সুশিক্ষা : উপজেলা চেয়ারম্যান টুটুল দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র চলছে : স্থানীয় সরকারমন্ত্রী নাসিক নির্বাচনে আইভীর হ্যাটট্রিক জয় মুরাদনগরে ওরা তিনজন বিনাভোটে নির্বাচিত মেম্বার দাউদকান্দি সার্কেলে সহকারি পুলিশ সুপার ফয়েজ ইকবালের যোগদান কুবির নতুন উপাচার্য অধ্যাপক মঈন দাউদকান্দিতে দেশিয় পিস্তলসহ যুবক গ্রেফতার ফেনসিডিল ইয়াবা ও গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার মুরাদনগরে ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণকারি প্রার্থীদের সাথে প্রশাসনের মতবিনিময় আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে পুলিশের নিরপেক্ষ ভূমিকা রাখার আহ্বান দাউদকান্দি আ’লীগ নেতৃবৃন্দের উন্নত দেশে মানুষ আইন-বিধিনিষেধ সহজেই মেনে চলে : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

২০২১ সালে যেসব ঘটনায় আলোচিত কুমিল্লা

এম এইচ মনির, বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৩৩ দেখা হয়েছে

২০২১ সাল নানা ঘটনায় দেশ বিদেশে আলোচিত হয়েছে কুমিল্লা। বিগত বছরে সবছেয়ে বেশি আলোচিত ঘটনা ছিল মহানগর আওয়ামী লীগের অফিস উদ্বোধনকালে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে ‘কুমিল্লা বিভাগ’ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এমপি বাহারের ‘মধুর’ বাহাস!

প্রধানমন্ত্রীর সাথে হাজী বাহার এমপির সাহসী কথোপথোন দেশে বিদেশে প্রশংসিত হয়। এছাড়া ২০২১ এ বর্ষ সেরা চরিত্র ’গদা ইকবাল’। এ চরিত্রটি কাঁপিয়েছিলো দেশের সীমানার বাহিরেও। বর্বোরোচিত ঘটনা ছিল একজন জনপ্রিয় কাউন্সিল সৈয়দ সোহলেকে সসহযোগিতে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা। এছাড়া আওয়ামী লীগের বর্ষিয়ান নেতা আবদুল মতিন খসরু, আলী আশ্রাফ, অধ্যক্ষ আফল খান, গরীবের আইনজীবী অ্যাডভোকেট বাসেত মজুমদারের মৃত্যুতে শোকাহত হয়েছে জেলাবাসী। এছাড়া বিদায়ী বছরে নানা ঘটনা জেলার গন্ডি ফেরিয়ে আলোচনায় এসেছে দেশ-বিদেশজুড়ে।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এমপি বাহারের ‘মধুর’ বাহাস!
২১ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একটি অনুষ্ঠানে কুমিল্লাকে বিভাগ ঘোষণার দাবি জানান কুমিল­া মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বাহার। কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যালয় উদ্বোধনী উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি যুক্ত হন। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংসদ সদস্য বাহার ‘মধুর’ বাহাসে জড়িয়ে পড়েন।
গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুষ্ঠানে যোগদান করেন। অপরদিকে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয় থেকে নেতাকর্মীরা যোগদান করেন।

অনুষ্ঠানের শেষ দিকে কুমিল্লা বিভাগ চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আবেদন জানিয়ে আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, কুমিল্লাতে কবি কাজী নজরুল ইসলাম তাঁর দীর্ঘ জীবন কাটিয়েছেন। তিনি কুমিল্লার জামাতা ছিলেন। একশ বছর আগে এ কুমিল্লা রাজধানী ছিলো। আমি ১৯৮৮ সাল থেকে বিভাগের আন্দোলন করি। আমি বিভাগের আন্দোলন করেছি কিন্তু বিভাগ হয়েছে ফরিদপুর, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেটে। অথচ আমি একমাত্র সংসদ সদস্য, যে সংসদে দাঁড়িয়ে বিভাগের বিষয়ে কথা বলেছি। কিন্তু আমার এলাকা কুমিল্লা বিভাগ হয়নি। আজকের এ সুন্দর একটি দিনে আপনার কাছে আবেদন করছি। এদিন আমরা আর কখনো পাব না। এ সুন্দর দিন আমরা মনে রাখব। ৬০ লাখ মানুষের প্রাণের দাবি কুমিল্লাকে বিভাগ ঘোষণা করা হোক।’

এ সময় প্রতিউত্তরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিভাগের বিষয়ে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আমি দুটি বিভাগ বানাব দুটি নদীর নামে। একটি হবে পদ্মা, অপরটি মেঘনা। এ দুই নামে বিভাগ করতে চাই।’
এ সময় আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, ‘আপা, আমি একটি কথা বলতে চাই।’
এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুচকি হেসে বলেন, ‘হুম, বলো।’
আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, ‘আপা, কুমিল্লা নামে দেন।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, “না, আমি এ ‘কু’ নামে দিব না।”
জবাব বাহার বলেন, ‘না আপা, কুমিল্লার নামে দেন।’
জবাবে প্রধানমন্ত্রী আবারও বলেন, ‘আমি তোমার কুমিল্লার নামে দিব না। কারণ, তোমার কুমিল­ার নামের সঙ্গে খুনি মোসতাকের নাম জড়িত।’
আ. ক. ম. বাহার আবারও বলেন, ‘না আপা, কুমিল্লার নামে দেন।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নো, আমি কুমিল্লার নামে দিব না। কুমিল্লার নাম নিলেই মোসতাকের নাম উঠে।’

আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বাহার আবারও বলেন, ‘আপা, কোনো কুলাঙ্গারের নামে দেশের পরিচয় হয় না। বাংলাদেশের পরিচয় বঙ্গবন্ধুর ওপর, মোনায়েম খানের ওপর না। যখন বাংলাদেশের নাম ছিলো না, তখন সবাই বঙ্গবন্ধুর দেশ নামে বলত। কোনো কুলাঙ্গারের নামে পরিচিত না।’

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাহার থামো, আমি যদি কুমিল­ার নামে দিই তাহলে চাঁদপুর বলবে তাদের নামে, নোয়াখালী বলবে তাদের নামে দেওয়ার জন্যকুমিল্লা তো ত্রিপুরার একটি ভগ্নাংশ।’

জবাবে আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, ‘আপা ময়মনসিংহ, সিলেট, রংপুর সবাইকে তাদের নামে দিয়েছেন এতে কোথাও কোনো সমস্যা হয়নি।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “ফরিদপুর বিভাগ করব ‘পদ্মা’ নামে। ফরিদপুরের নামও দিচ্ছি না। আর কুমিল­া বিভাগ হবে ‘মেঘনা’ নামে। কারণ ‘পদ্মা-মেঘনা-যমুনা, তোমার আমার ঠিকানা’- এ শ্লোগান বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ করেছে বিজয় অর্জন করেছে।”

আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, ‘না আপা, আমাদেরটাকুমিল্লার নামে রাখেন।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এ নামে অন্য জেলাগুলো আসতে চায় না।’

আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বলেন, ‘কেন আসবে না?’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘নোয়াখালী, ফেনী, চাঁদপুর, লহ্মীপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া কেউ আসবে না।’

আ. ক. ম. বাহার আবারও বলেন, ‘আপা আপনি কী সিলেটে জিজ্ঞাসা করে বিভাগ দিয়েছেন। আপনি দিলে সবাই আসবে, সবাই মানবে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘নো, তোমাকে দায়িত্ব দিলাম; তুমি রাজি করিয়ে নিয়ে আস। সবাইর কাছ থেকে লিখিত নিয়ে আস।’

আ. ক. ম. বাহার বলেন, ‘আপা, আপনি বলে দিলে সবাই মানবে। আমার কথা কেউ শুনবে না।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “পদ্মা, মেঘনা, যমুনা নাম দিয়ে দিচ্ছি। তোমরা ছাত্র আবস্থায় শ্লোগান দিয়েছ- ‘পদ্মা-মেঘনা-যমুনা, তোমার-আমার ঠিকানা; বাংলাদেশ, বাংলাদেশ’।”

আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, ‘বীর বাঙালি অস্ত্র ধর, বাংলাদেশ স্বাধীন করো। বীর মুক্তিযোদ্ধা আমরাই প্রথম বলেছিলাম। আমরা বঙ্গবন্ধুর কর্মী।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হাসতে হাসতে বলেন, “তাহলে তুমি থাকো। যদি বিভাগ চাও তাহলে আমি ‘মেঘনা’ নামে করে দিতে পারি।”

নাছোড়বান্দা আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, ‘আপা করজোড়ে অনুরোধ করছি কুমিল্লা নামে দেন।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মেঘনা পার হলেই তো কুমিল­া, আর পদ্মা পার হয়ে যাবো ফরিদপুর।’

আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নয়; আপা হিসেবে আপনার কাছে দাবি জানাচ্ছি; বঙ্গবন্ধুকন্যা আমাদের ফেরত দিবে না। বঙ্গবন্ধুকন্যা আমাদের ফেরত দিতে পারবে না।’

এ সময় নেতাকর্মীরা করতালি দিতে থাকেন।

তখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘তোমার পদ্মা সেতু, মেঘনা সেতু, গোমতি, তিতাস সেতু করে দিয়েছি। সবই তো করলাম। আমি তো বললাম কেউ আসবে না।’

আ. ক. ম. বাহার বলেন, ‘আপা আপনি চাইলে বাংলাদেশে হবে না এমন কিছুই নাই। আপনি চাইলে সবই হবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নোয়াখালী চায় তাদের নামে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া চায় তাদের নামে, সবাই সবাইর নামে চায় এটা দিতে পারব না। চাঁদপুর নাম তো আরও সুন্দর। চাঁদপুর চায় তাদের নামে হোক।’

আ. ক. ম. বাহার বলেন, ‘আপা বঙ্গবন্ধুর আমলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছিল পার্ট অব কুমিল্লা, চাঁদপুর ছিল পার্ট অব কুমিল্লা। আমাদের ছাত্রলীগের বিশাল একটি অংশ ছিল কুমিল্লার।’

জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কুমিল্লার আসল নাম ছিল ত্রিপুরা। এখনো পুরনো কাগজে ত্রিপুরা লেখা আছে। রেজিস্ট্রার দপ্তরে গিয়ে দেখ ত্রিপুরাই লেখা আছে। ঠিক আছে, তোমাদের প্রস্তাব রাখলাম। পছন্দ হলে ভাল, না হলে কিছু করার নেই।’

জবাবে আ. ক. ম. বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, ‘আপা আপনি এভাবে বললে আমরা কার কাছে যাব।’
জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘ঐতিহাসিক দুটি নদীর নামে দিচ্ছি। এ নিয়ে আর কোনো কথা নয়। তবে তোমাদের প্রস্তাব রাখলাম।’

নগরীতে পুজামন্ডপকান্ড :
বর্ষ সেরা চরিত্র গদা ইকবাল গত ১৩ অক্টোবর সকালে কুমিল্লা নগরের নানুয়া দিঘির পাড়ে শারদীয় দুর্গাপূজার পূজামণ্ডপ থেকে পবিত্র কোরআন শরিফ উদ্ধার করা হয়। এরপর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে কুমিল্লার নগরের চারটি মন্দির, সাতটি পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ হয়। এ ছাড়া জেলার সদর দক্ষিণ, দেবীদ্বার ও দাউদকান্দিসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রতিমা ভাঙচুর ও সংঘর্ষ হয়। দেশব্যাপী সংঘর্ষের ঘটনায় প্রায় একশ মামলায় আসামী হয়েছেন কয়েক হাজার। ২১ অক্টোবর কক্সবাজারের সমুদ্রসৈকতে সুগন্ধা পয়েন্ট থেকে নানুয়া দিঘির পাড়ের অস্থায়ী পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার অভিযোগে ইকবাল হোসেনকে আটক করে কক্সবাজার পুলিশ।

কুসিক কাউন্সিলরসহ জোড়া খুন:
প্রকাশ্যে গুলি করে কুমিল্লা সিটি কাউন্সিলর সোহেলসহ সহযোগি হরিপদ সাহাকে ২২ নভেম্বর বিকালে নগরীর পাথুরিয়াপাড়া এলাকায় কাউন্সিলরের ব্যক্তিগত কার্যালয়ে অবস্থানকালে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই সৈয়দ মো. রুমন বাদী হয়ে কুমিল্লা কোতয়ালি মডেল থানায় ১১ জনের নাম উলে­খ করে অজ্ঞাতনামা আরও ৮-১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। এ মামলার এজাহারনামীয় প্রধান আসামি শাহ আলম ২ ডিসেম্বর গভীর রাতে এবং এর আগে ৩০ নভেম্বর গভীর রাতে ৩ নম্বর আসামি সাব্বির হোসেন ও ৫ নম্বর আসামি সাজন পুলিশের সাথে পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন।

কুসিকের বড় প্রকল্প:
কুমিল্লার বিভিন্ন নানা প্রতিকুলতার মধ্যেও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ইতিহাসে সবচেয়ে বৃহৎ প্রকল্প অনুমোদন হওয়ায় খুশি নগরবাসী। ৭ ডিসেম্বর কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়নে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে প্রায় ১ হাজার ৫শ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এনইসি সম্মেলন কক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেকের সভায় এ প্রকল্প অনুমোদন করা হয়। এ প্রকল্পে ১৫ তলা বিশিষ্ট আধুনিক নগরভবন, হাতির ঝিলের আদলে করা হবে পুরানো গোমতি নদীকে, ৬ তলা বিশিষ্ট দুটি সেবক কলোনিসহ নানা উন্নয়ন, আধুনিকায়নে এক ধাপ এগিয়ে যাবে কুমিল্লা নগরী।

ঝড়ে পড়েছে ৬০ হাজার শিক্ষার্থী:
মহামারি করোনার প্রভাবে ২০২১ সালে কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় ঝড়ে পড়লো ৬০ হাজার শিক্ষার্থী। প্রান গেল ৯৫৪ মহামারি করোনায় প্রান গেল ৯৫৪ জনের। এ পযন্ত করোনায় ৩৯ হাজার ১১৩জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত । সুস্থ হয়েছেন ৩৭ হাজার ৯১০ জন।

না ফেরার দেশে বর্ষিয়ান নেতারা:
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) আসনের সাংসদ সাবেক মন্ত্রী আব্দুল মতিন খসরু ১৪ এপ্রিল ইন্তেকাল করেন। এ আসনের সাবেক সাংসদ অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউনুস মারা গেছেন ২৭ মার্চ। ৩০ জুলাই চান্দিনা আসনের সাংসদ অধ্যাপক আলী আশ্রাফ মারা যান। ২৭ অক্টোবর সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা কমিটির সদস্য আবদুল বাসেত মজুমদার মারা গেছেন। ১৬ নভেম্বর কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, চৌদ্দ দলের সমন্বয়ক বঙ্গবন্ধুর সহচর অধ্যক্ষ আফজল খান মারা গেছেন।

সেরাদের মধ্যে কুমিল্লা:
করোনা মহাারির মধ্যেও পতিত প্লাবন ভূমিতে মাছ চাষ করে পুরো এশিয়ায় উদাহরণ সৃষ্টি করেছে কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দির মৎস চাষীরা। দেশের মাছ উৎপাদনে ২ স্থানে রয়েছে এ জেলা। বিদেশে রেমিটেন্স আয়ের দিক থেকেও ঢাকার পর কুমিল্লার অবস্থান। কৃষির দিক থেকেও কুমিল­ার শীর্ষ স্থান দখলে কুমিল্লা

Last Updated on December 31, 2021 7:07 pm by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102
error: Content is protected !!