বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১১:০৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
সেবার মান সন্তোষজনক পর্যায়ে উন্নীত না পর্যন্ত গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা বিএনপির কেন্দ্রীয় ত্রাণ তহবিলে কুমিল্লা মহানগর বিএনপির চেক হস্তান্তর লাকসামে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু কুসিকের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর বাবুল কারাগারে কুমিল্লায় আইনগত সহায়তা সেবার মান উন্নয়নে এবং সহজীকরণে বিচারকগণের ভূমিকা শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে গাছ কাটা নিয়ে ভিন্নমত ! স্থানীয়দের দাবী সামাজিক বনায়নের, বিক্রেতার দাবী নিজের রোপন করা গাছ দাউদকান্দিতে মাদকসহ আটক যুবলীগ নেতাকে বহিস্কারের দাবিতে মানববন্ধন মুরাদনগরে ড্রেজার মেশিন জব্দ কুমিল্লার খামারিরা শঙ্কিত ভারতীয় গরুর প্রবেশ নিয়ে  দেবীদ্বারে ট্রাকের চাপায় সিএনজি অটোরিকশা চালকের মৃত্যু মুরাদনগরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৫শ পরিবারের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ   দুই বছর পর কুমিল্লার বিবিরবাজার স্থলবন্দর দিয়ে যাত্রী পারাপার শুরু মুরাদনগরে ২৫ জন দুস্থ নারী পেলেন সেলাই মেশিন রিফাত বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন পরীক্ষিত কর্মী : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী কোরবানীর হাটে নির্ধারিত হাসিল প্রতি ১ টাকায় ১১ পয়সা।। কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহে ঈদের জামাত সকাল আটটায় নিমসারে পিকআপ চুরির ১৫ মিনিটের মধ্যে তিন জন আটক কুমিল্লায় প্রবাসী হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন সদর দক্ষিণে ১০০কেজি গাঁজাসহ দুই জন আটক  দেবীদ্বারে আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত কুমিল্লায় মাদক বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস পালিত

ভোটের হাটে সাক্কুর হাঁড়ি ভাঙ্গছে রিফাত : জয় পেতে কৌশলী কায়সার

সাদিক মামুন
  • আপডেট টাইম বুধবার, ১ জুন, ২০২২
  • ১৩৩ দেখা হয়েছে
পথসভায় বক্তব্য রাখছেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের সময় যতো ঘনিয়ে আসছে, প্রার্থীদের প্রচারণায় যোগ হচ্ছে ভিন্ন মাত্রা। ভোটারদের কাছে ভোট চাওয়ার পাশাপাশি প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থীর বিগত সময়ের কর্মকান্ডকে নেতিবাচক এবং সাবেক মেয়র দুর্নীতিবাজ এমন অভিযোগের ফিরিস্তিও তুলে ধরছেন। বিশেষ করে নগরীর বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ, উঠোন বৈঠক ও পথসভায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত ভোটের হাটে স্বতন্ত্র প্রার্থী সদ্যবিদায়ী মেয়র মনিরুল হক সাক্কুর হাঁড়ি ভাঙ্গতে শুরু করেছেন। তবে মনিরুল হক সাক্কু এসব অভিযোগ আমলে না নিয়ে গণমাধ্যমে বলছেন,দশ বছর মেয়র ছিলাম তখন দুর্নীতির কথা উঠেনি, এখন কেনো উঠছে।দুর্নীতি করলে সরকারের বিভিন্ন সংস্থা রয়েছে তারাই বিষয়টি দেখবেন।

কুমিল্লার সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের আরফানুল হক রিফাত নগরীর বেশ কটি এলাকায় গণসংযোগ করেছেন। এসময় তিনি মেয়র নির্বাচিত হলে নগরবাসীর মূল যেসব সমস্যা তা অল্প সময়ে সমাধান করার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন।
বুধবার সকাল থেকে গণসংযোগ শুরু করেন তিনি। গণসংযোগকালে নগরীর বিভিন্ন শ্রেণি-পেশা মানুষ ব্যাপক সাড়া দেয় রিফাতের গণসংযোগে। নগরীর রেইসকোর্স ইস্টার্ন প্লাজা থেকে গণসংযোগ শুরু করে স্টেশন রোড, বিআরটিসি মোড়, রানীর বাজার ব্যবসায়ীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। সন্ধ্যায় ছাতিপট্টি ও মনোহরপুরে পথসভা করেন।
এ সময় আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত বলেন, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আপনাদের ভোটে মেয়র হয়ে আমি নগর পিতা হবো না। নগর সেবক হয়ে কাজ করবো। নগরীর গুরুত্বপূর্ণ বাজারগুলোর আধুনিকায়নে ভূমিকা রাখবো। ক্রেতা ও ব্যবসায়ীদের মাঝে যাতে আন্তরিক সম্পর্ক বিরাজ থাকে এজন্য বাজার মনিটরিং ব্যবস্থাকে গতিশীল করে তুলবো। রিফাত বলেন, আমি চাই একটি দুর্নীতিমুক্ত সিটি করপোরেশন গড়তে। গত ১০ বছরে সিটি করপোরেশন নিরব দুর্নীতির আখড়ায় পরিণত হয়েছে।নগরবাসী সঠিক সেবা পায়নি এই প্রতিষ্ঠানটি থেকে। নির্বাচিত হলে সাবেক মেয়রের দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশ করবো।
রিফাত বলেন, আমি মেয়র নির্বাচিত হলে ওয়াদা করছি সকল দুর্নীতির মূলোৎপাটন করে নগরবাসীর সেবার ঘরে পরিণত করবো নগরভবনকে। নগরীর মূল সমস্যা যানজট ও জলাবদ্ধতা আগের মেয়র ১৫ বছরেও সমাধান করতে পারেনি। মাত্র এক ঘন্টা বৃষ্টি হলে এই নগরী পানিতে তলিয়ে যায়। সরকারের নগর উন্নয়নের অর্থের সঠিক ব্যবহার হয়নি বলেই আজও নগরবাসী জলাবদ্ধতায় ভোগে। আর নগরীর রাস্তাঘাট অলিগলি নিয়ন্ত্রনে সঠিক পরিকল্পনা, সমন্বয় ও শিক্ষা না থাকায় যানজটের ত্রাহি যন্ত্রণা থেকে মানুষের মুক্তি মিলছে না। কথা দিচ্ছি, আমি মেয়র নির্বাচিত হলে জলাবদ্ধতা ও যানজট সমস্যা এক বছরের মধ্যে দৃশ্যমান সমাধান করবো। তিনি বলেন, ৫ বছরের জন্য মেয়র নির্বাচিত হয়। এই ৫ বছর অনেক সময়। এই সময়ে নগরীর উন্নয়নে অনেক কিছুই করা যায়। কিন্তু করেন না। কারণ লোভ লালসা দুর্নীতিতেই সময় চলে যায়। এরপর আবার অসমাপ্ত কাজ শেষ করার দোহাই নিয়ে ভোট চায়। আমি এই চরিত্রের মেয়র হতে চাই না। আমি চাই আমার কাজের, আমার ওয়াদার মূল্যায়ন যেন মানুষের হৃদয়ে হাজার বছর বেঁচে থাকে।
গত রবিবার থেকে শুরু হওয়া নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আরফানুল হক রিফাতের গণসংযোগ, উঠোন বৈঠক, পথসভায় মানুষের ব্যাপক সাড়া মিলছে। মাত্র চারদিনের প্রচারণায় নেমে ভোটের মাঠের দৃশ্যপট পাল্টে দিয়েছেন এই মেয়র প্রার্থী।

এদিকে স্বতন্ত্র দুই মেয়র প্রার্থীর মধ্যে প্রচারণা ও গণসংযোগে চমক দেখাচ্ছেন ঘোড়া প্রতীকের নিজাম উদ্দিন কায়সার। বয়সে তরুণ এই মেয়র প্রার্থী যেখানেই যাচ্ছেন সেখানেই ব্যাপক সাড়া মিলছে তার। জয় পেতে অত্যন্ত কৌশলী হয়ে প্রচারণা চালাচ্ছে কায়সার। তরুণ প্রজন্মের ভোট নিজের কবজায় আনতে সব কৌশলই প্রয়োগ করছেন তরুণ এই প্রার্থী। কাজে লাগাচ্ছেন বিগত সময়ে দলের (বিএনপি) জন্য রাজনীতির মাঠে থেকে হামলা-মামলা আর কারাগারে যাওয়ার বিষয়গুলো। বিএনপির মূলধারার নেতত্বে থাকা হাজী আমিন উর রশিদ ইয়াছিনের শ্যালক কায়সারের প্রতি পরোক্ষভাবে দলের নেতাকর্মী সমর্থকদের সমর্থন রয়েছে। যা ভোটের দিন ঘোড়া প্রতীকে প্রতিফলিত হবে বলে মনে করছেন জেলার রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু নগরীতে প্রচারণা চালালেও তিনি অভিযোগ নিয়েই সময় পার করছেন। তার অভিযোগ, ঘড়ি প্রতীকের পোষ্টার ছিড়ে ফেলছে, প্রচারণার মাইক ভাঙ্গছে, বাধা দিচ্ছে ইত্যাদি। এসব বিষয়ে তিনি নির্বাচন কমিশনে অভিযোগও করেছেন।একই দলের কায়সার প্রার্থী হওয়ায় অনেকটাই বেকায়দায় রয়েছেন দুইবারের সফল মেয়র দাবি করা সাক্কু। তবে তিনি গণমাধ্যমে বলছেন, সভা, উঠৈান বৈঠকে হাজার লোকের সমাগমে আমি বিশ্বাসী নই। আমি দুই লাখ ভোটারের কাছে যাবো ভোট চাইবো। কায়সার ছোট ভাই, সে কেনো নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছে এটা তার বোধগম্য নয়।

কেবল মেয়র প্রার্থী নয়, কাউন্সিলর প্রার্থীরাও ভোটের মাঠ গরম করছেন নানা আঙ্গিকের প্রচারণায়। এবারে সব কটি ওয়ার্ডেই নতুন মুখের কাউন্সিলর প্রার্থীরা আটঘাট বেধে প্রচারণা চালাচ্ছেন।

Last Updated on June 1, 2022 8:49 pm by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102
error: Content is protected !!