রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
মুরাদনগরে ড্রেজার মেশিনের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসনের অভিযান নাচ গানে বর্ষার বন্দনা কুমিল্লা সাংস্কৃতিক জোটের কুসিক মেয়র রিফাতকে মহানগর ক্লাবের ফুলেল শুভেচ্ছা লাকসাম পৌর বিএনপির সম্মেলন কুমিল্লা শহরে করতে এসে বাধার মুখে চৈতী কালাম গ্রুপ মুরাদনগরে নারী মানবাধিকার কর্মীকে মারধরের ঘটনার মামলায় একজন আটক  ভুয়া কাবিননামায় স্ত্রী দাবী! ইংল্যান্ড প্রবাসীর সম্পদ দখলের অভিযোগ সংবাদসম্মেলনে খেলাধূলা এগিয়ে নিতে ও ভালো মানের খেলোয়াড় সৃষ্টিতে করণীয় বিষয়ে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হবে : মেয়র রিফাত মুরাদনগরে শালিসে নারী মানবাধিকার কর্মীকে মারধর ও শ্লীলতাহানি -সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও ভাইরাল কুমিল্লায় র‌্যাবের পৃথক অভিযানে গাঁজা ও ইয়াবাসহ দুই জন আটক  বিপুল ত্রাণসামগ্রী নিয়ে বন্যার্তদের পাশে আবিদপুর সিটিজি যুবসমাজ ডা. মল্লিকা বিশ্বাস আন্তর্জাতিক নারী সংগঠন ইনার হুইল ডিস্ট্রিক্ট চেয়ারম্যান নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের অনিয়ম ও অপকৌশল চর্চার শিক্ষা না দেওয়ার আহ্বান উপজেলা চেয়ারম্যান টুটুলের কুমিল্লায় আইজিপি কাপ কাবাডিতে বান্দরবান চ্যাম্পিয়ন সদর দক্ষিণে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ, বিয়ে বাড়ির খাবার এতিমখানায় বিতরণ কুমিল্লায় ধর্ষণের অভিযোগে চাষী মামুন গ্রেফতার কুসিকের নব নির্বাচিত মেয়র কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণ ৪ জুলাই আজকের শিক্ষার্থীদের আগামী দিনে পরিবেশ সংরক্ষণে এ্যাম্বেসেডর হতে হবে -পরিবেশ দিবসের আলোচনা সভায় শওকত আরা কলি সেবার মান সন্তোষজনক পর্যায়ে উন্নীত না পর্যন্ত গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা বিএনপির কেন্দ্রীয় ত্রাণ তহবিলে কুমিল্লা মহানগর বিএনপির চেক হস্তান্তর লাকসামে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু

করোনায় বন্ধ বিভিন্ন সংক্রামক রোগপ্রতিরোধী টিকাদান ।। শিশু মৃত্যুহার বাড়ার আশঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই, ২০২০
  • ১৩৭ দেখা হয়েছে

ছবি: সংগৃহিত।।

অদূর ভবিষ্যতে শিশুমৃত্যুর হার ভয়ানকভাবে বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছে জাতিসংঘ ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে বিশ্বজুড়ে শিশুদের বিভিন্ন সংক্রামক রোগপ্রতিরোধী টিকাদান একপ্রকার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এমন আশঙ্কা করা হচ্ছে।

জাতিসংঘের তথ্যমতে, করোনা মহামারির আগে থেকেই হামের ভয়াবহ সংক্রমণের মুখে ছিল বিশ্ব। ২০১৮ সালে এতে আক্রান্ত হয়েছিলেন অন্তত এক কোটি মানুষ, এর মধ্যে মারা গেছেন কমপক্ষে ১ লাখ ৪০ হাজার। মৃতদের মধ্যে বেশিরভাগই ছিল শিশু।

ইউনিসেফের হিসাবে, প্রতিবছর সময়মতো টিকাদানের কারণে জীবন বেঁচে যায় অন্তত ৩০ লাখ মানুষ, বিশেষ করে শিশুদের। তারপরও বহু জায়গা এ কার্যক্রমের বাইরে থেকে যাচ্ছে। ফলে প্রতিবছর এমন ১৫ লাখ মানুষ মারা যাচ্ছেন, যাদের টিকা দিতে পারলে হয়তো জীবনরক্ষা সম্ভব হতো।

সম্প্রতি ৮০টি দেশে জাতিসংঘ পরিচালিত এক জরিপে দেখা গেছে, তিন-চতুর্থাংশ দেশেই টিকাদান কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হয়েছে। ফলে, প্রায় তিন দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো চলতি বছরের প্রথম চার মাসে ডিপথেরিয়া, টিটেনাস ও হুপিং কাশি প্রতিরোধী টিকাদানের হার কম দেখা গেছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক তেদ্রোস আধানম গ্যাব্রিয়েসুস বলেছেন, টিকা না পাওয়ায় শিশুদের মধ্যে রোগ সংক্রমণ ও মৃত্যুহার অনেকটাই বেড়ে যেতে পারে।

ইউনিসেফ ও ডব্লিউএইচও জানিয়েছে, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রয়োজনীয় ব্যক্তিগত সুরক্ষা উপকরণ (পিপিই) না থাকা, ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা, স্বাস্থ্যকর্মী সংকট ও ঘরছাড়তে অনীহার কারণে চলতি বছর শিশুদের টিকাদান কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। এভাবে চলতি বছরের মে মাস পর্যন্ত অন্তত ৩০টি হাম প্রতিরোধী টিকাদান অভিযান বাতিল বা স্থগিত করা হয়েছে।

Last Updated on July 16, 2020 5:40 am by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102
error: Content is protected !!