বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৩:২৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
আজকের শিক্ষার্থীদের আগামী দিনে পরিবেশ সংরক্ষণে এ্যাম্বেসেডর হতে হবে -পরিবেশ দিবসের আলোচনা সভায় শওকত আরা কলি সেবার মান সন্তোষজনক পর্যায়ে উন্নীত না পর্যন্ত গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা বিএনপির কেন্দ্রীয় ত্রাণ তহবিলে কুমিল্লা মহানগর বিএনপির চেক হস্তান্তর লাকসামে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু কুসিকের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর বাবুল কারাগারে কুমিল্লায় আইনগত সহায়তা সেবার মান উন্নয়নে এবং সহজীকরণে বিচারকগণের ভূমিকা শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে গাছ কাটা নিয়ে ভিন্নমত ! স্থানীয়দের দাবী সামাজিক বনায়নের, বিক্রেতার দাবী নিজের রোপন করা গাছ দাউদকান্দিতে মাদকসহ আটক যুবলীগ নেতাকে বহিস্কারের দাবিতে মানববন্ধন মুরাদনগরে ড্রেজার মেশিন জব্দ কুমিল্লার খামারিরা শঙ্কিত ভারতীয় গরুর প্রবেশ নিয়ে  দেবীদ্বারে ট্রাকের চাপায় সিএনজি অটোরিকশা চালকের মৃত্যু মুরাদনগরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৫শ পরিবারের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ   দুই বছর পর কুমিল্লার বিবিরবাজার স্থলবন্দর দিয়ে যাত্রী পারাপার শুরু মুরাদনগরে ২৫ জন দুস্থ নারী পেলেন সেলাই মেশিন রিফাত বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন পরীক্ষিত কর্মী : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী কোরবানীর হাটে নির্ধারিত হাসিল প্রতি ১ টাকায় ১১ পয়সা।। কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহে ঈদের জামাত সকাল আটটায় নিমসারে পিকআপ চুরির ১৫ মিনিটের মধ্যে তিন জন আটক কুমিল্লায় প্রবাসী হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন সদর দক্ষিণে ১০০কেজি গাঁজাসহ দুই জন আটক  দেবীদ্বারে আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

করোনায় সুরক্ষা ও লেখাপড়ার ধারাবাহিকতা বজায়ে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের করণীয়

শিক্ষা-সাহিত্য ডেস্ক
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১
  • ৩৮৯ দেখা হয়েছে
করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে আমাদের দেশে গতবছর ১৭ মার্চ থেকে এখনো সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কোমলমতি শিক্ষার্থীরা বাসায় অলস সময় কাটাচ্ছে। শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড হলেও বর্তমান করোনাকালীন সময়ে যেখানে করোনার সংক্রমণ থেকে নিজেকে রক্ষা করে সুস্থভাবে বেঁচে থাকাটাই আমাদের সবার জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই  ক্রান্তিকালে কীভাবে আমরা নিজেদের সুরক্ষা রেখে ও লেখাপড়ার ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের করণীয় সম্পর্কে ‘প্রতিসময়’ এর শিক্ষা-সাহিত্য বিভাগে এ পর্বে লিখেছেন আমাদের নিয়মিত লেখক কুমিল্লার ঐতিহ্যবাহী শিশু বিদ্যাপীঠ নজরুল মেমোরিয়াল একাডেমীর সিনিয়র সহকারী শিক্ষক রোটারিয়ান মো. ফারুকুল ইসলাম।

করোনায় সুরক্ষা ও লেখাপড়ার ধারাবাহিকতা বজায়ে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের করণীয়

আমরা যারা নজরুল মেমোরিয়াল একাডেমীতে শিক্ষকতা করছি, করোনাকালীন এই সময়ে আমরা বছরের প্রথম  মাস জানুয়ারি থেকেই আমাদের শিক্ষার্থীদের জন্য প্রতিটি বিষয়ের উপর সাপ্তাহিক শীট তৈরি করছি। অভিভাবকগণ স্বাস্খ্যবিধি মেনেই প্রতি সপ্তাহের রবিবারে স্কুল থেকে সন্তানদের জন্য শীট নিচ্ছেন। শীটে আমরা পাঠ্যবই থেকে প্রথমে  পৃষ্ঠা অনুযায়ী রিডিং পড়াই। রিড়িং পড়ানোর পর পঠিত পৃষ্ঠা থেকে আমরা শিক্ষকরা উত্তরসহ প্রশ্ন তৈরি করে দিচ্ছি। এতে তারা অধ্যায়টা রিডিং পড়ার পাশাপাশি বিভিন্ন প্রশ্ন সম্পর্কে অবগত হচ্ছে এবং অধ্যায়ভিত্তিক জ্ঞানলাভ করছে।

প্রতিটি গল্প,কবিতা ভালোভাবে রিডিং পড়ে অধ্যায়ভিত্তিক প্রশ্ন বুঝে নেওয়া: শিক্ষার্থীদের পাঠ্যবইয়ের প্রতিটি গল্প,কবিতা ভালোভাবে রিডিং পড়তে হবে। গল্প,কবিতা রিডিং পড়লে এর বিষয়বস্তু সম্পর্কে জ্ঞানলাভ করা যায়। কেবল না বুঝে গাইড থেকে প্রশ্নের উত্তর মুখস্থ করলেই হবে না। বুঝে পড়ে জ্ঞানলাভ করতে হবে। এক্ষেত্রে  অভিভাবকগণ বাসায় শিক্ষকের ভূমিকা পালন করবেন।

বাসায় রুটিনমাফিক লেখাপড়া করা: ছাত্র-ছাত্রীদের অবশ্যই বাসায় রুটিনমাফিক পড়াশোনা করতে হবে। একদিন মন চাইলে বেশী করে পড়লাম, আবার দুই একদিন পড়ার সাথেই কোনো সম্পর্ক নাই এমন করলে হবে না। এতে পড়ার ছন্দপতন হবে। জীবন গড়ার সময় এখনই। এখন থেকেই  জীবন গড়ার প্রস্তুতি নিতে হবে। সম্মানিত অভিভাববৃন্দকে এ বিষয়টা খেয়াল রাখতে হবে।

সন্তানদের কোয়ালিটি সময় দেওয়া: আমাদের সন্তানরা এখন অনেকটা নিঃসঙ্গ সময় পার করছে। ঘর থেকে বাইরে বের হতে পারছে না, বন্ধু-বান্ধবদের সাথে সময় কাটাতে পারছে না। এতে তাদের মানসিক বিকাশ অনেকটা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। এ অবস্থায় আমরা অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানাবো আপনার সন্তানের জন্য নিয়মিত রুটিনমাফিক কোয়ালিটি সময় দিন। এতে তাদের মানসিক বিকাশে অনেকটা সহযোগিতা হবে।  করোনায় সুরক্ষা-নিরাপদ থাকার ব্যাপারে স্বাস্থ্যবিধির ওপর গুরুত্ব দেবেন। আরেকটি বিষয় খেয়াল রাখবেন, সন্তানকে মনোভাব শেয়ার করার অভ্যাস করাতে হবে। তাতে করে তার জড়তা কেটে যাবে।

হাতের লেখার প্রতি বিশেষ যত্নবান হওয়া: সন্তানদের হাতের লেখার প্রতি বিশেষ যত্নবান হতে হবে। এখন তারা স্বাভাবিক সময়ের মতো স্কুল করতে পারছে না। তাই লেখার চাপ স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে অনেক কম। এখন দেখা যাচ্ছে অধিকাংশ শিক্ষার্থী হাতের লেখার প্রতি তেমন গুরুত্ব দিচ্ছে না। তাদের অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে, হাতের লেখাও এক প্রকার আর্ট। ধারাবাহিক অনুশীলন না করলে হাতের লেখা সুন্দর হবে না এবং পরীক্ষায়  কাংখিত ফলাফল অর্জন করা যাবে না। প্রতিদিন পড়ার রুটিনে হাতের লেখার চর্চার একটা নির্দিষ্ট সময় অবশ্যই থাকতে হবে।

সবশেষে বলবো, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ আমাদের দেশে চলমান। ইতিমধ্যে করোনার প্রকোপও বেড়ে গেছে। বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা।  এতে ভয় নয়, ঘরে ও ঘরের বাইরেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন।  সন্তান নিয়ে বাইরে বেরুলে যতোটা সম্ভব জনসমাগম এড়িয়ে চলবেন, মাস্ক তো অবশ্যই পরতে হবে।  শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হয় এমন খাবার খাবেন। ঘরে সন্তানের সাথে হাসিখুশি থাকবেন।  ওদের পড়ালেখার ব্যাপারে অভিভাবক হিসেবে আপনি দায়িত্বশীল হলে সন্তানরা এমনিতে পড়ালেখায় যত্নশীল হয়ে উঠবে। সবমিলে সংসারে  হাসিখুশি থাকবেন। ইবাদত, উপাসনা করবেন। সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করবেন।

# দেশ-বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে প্রতিসময় (protisomoy) ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

Last Updated on March 23, 2021 1:22 pm by প্রতি সময়

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...

বিস্তারিত জানতে ছবিতে ক্লিক করুন।

themesba-lates1749691102
error: Content is protected !!